ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা
ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ময়মনসিংহ

ময়মনসিংহ নগরীতে বেফাঁস কথা বলাকে (আপত্তিকর মন্তব্য) কেন্দ্র করে এক যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ওই যুবলীগ নেতার নাম মো. পারভেজ (৩০)। তিনি নগরীর ২৯ নং ওয়ার্ডের গন্দ্রপা এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। পারভেজ বিলুপ্ত আকুয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান ২৯নং ওয়ার্ডের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন।

গত দু’দিন আগে মন্তব্য করার জেরে শুক্রবার (১ জুলাই) রাতে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, পারভেজের বাড়ির কাছের মোড়ে টং দোকান করেন দিলিপ নামের একজন ব্যবসায়ী। তার সঙ্গে গত বুধবার দিলিপের আপত্তিকর মন্তব্য করাকে কেন্দ্র করে বাগবিতণ্ডা হয়। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পারভেজ বাড়িতে যাবার পথে আবারও বাগবিতণ্ডা শুরু হয়।

একপর্যায়ে পারভেজকে কোপাতে শুরু করে দিলিপ। এতে যুক্ত হয় দিলিপের সঙ্গে আরও কয়েকজন। গলা-বুকসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যুপরি কোপানোর ফলে গুরুতর অবস্থায় পারভেজকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাত সাড়ে ১০টার দিকে মারা যান।

পারভেজ মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক শাহীনূর রহমানের অনুসারী ছিলেন। বিষয়টি নিশ্চিত করে শাহীনূর জানান, একটি সালিশে গালাগালি করাকে কেন্দ্র করে পরিকল্পিতভাবে জনপ্রিয় নেতাকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত দিলিপ নেশাখোর। হত্যায় জড়িত সকল আসামিকে গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেন তিনি।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহ কামাল আকন্দ বলেন, বেফাঁস মন্তব্য করাকে কেন্দ্র করে বাগবিতণ্ডার জেরে হত্যাকাণ্ড ঘটে। জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছে।

news24bd.tv তৌহিদ