সোমবার, ১ জুন, ২০২০ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ০৩ মিনিট আগে

শিক্ষার্থী ভারতে ভর্তি হলে অভিভাবকও পাবেন ৩ বছরের ভিসা

নিজস্ব প্রতিবেদক

শিক্ষার্থী ভারতে ভর্তি হলে অভিভাবকও পাবেন ৩ বছরের ভিসা

ভারতের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তি হলে তার মা-বাবাকেও ৩ বছরের ভিসা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।

তিনি বলেন, ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সাম্প্রতিক ঢাকা সফরের সময় স্বাক্ষরিত সংশোধিত ট্র্যাভেল অ্যারেঞ্জমেন্টে স্টুডেন্ট ভিসার নিয়মও শিথিল করা হয়েছে।

কাল রাজধানীর খামারবাড়িস্থ কেআইবি কনভেনশন হলে ভারতীয় শিক্ষা মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, ‘ভর্তি হলেই শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা সঙ্গে সঙ্গে কমপক্ষে ৩ বছরের ভিসা পাবেন।’

হাই কমিশনার বলেন, তার দেশ প্রতিবেশী দুই রাষ্ট্রের জনগণের মধ্যকার যোগাযোগ বাড়ানোর ওপর গুরুত্ব দিয়ে আসছে। ২০১৭ সালে ভারত ১৪ লাখের বেশি ভিসা দিয়েছে, যা আগের বছরের দ্বিগুণ।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের ভারতের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হওয়ার উৎসাহ দিয়ে শ্রিংলা বলেন, উচ্চ শিক্ষার জন্য ভারত এখন একটি আকর্ষণীয় গন্তব্য।

‘ভারতে রয়েছে ৮শ বিশ্ববিদ্যালয় এবং ৩৮ হাজার কলেজ; ইংরেজি ভাষাভাষী বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ হিসেবে ভারত দিচ্ছে আধুনিক সুবিধাসহ বিশ্বমানের উচ্চশিক্ষার সুযোগ।’

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা ভারতে পড়তে গেলে বেশ কিছু সুবিধা পাবেন। সাংস্কৃতিক মিল, দুই দেশের মধ্যে দূরত্ব, ভাষাগত মিল, প্রায় একই ধরনের খাদ্যাভাস, উন্নত যোগাযোগ এবং তুলনামূলকভাবে সাশ্রয়ী শিক্ষাব্যয় উল্লেখযোগ্য।

এছাড়া বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষায় ভারত বিভিন্ন পর্যায়ে বৃত্তির সুযোগ দিয়ে আসছে। ভারতের মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের নেওয়া ‘স্টাডি ইন ইন্ডিয়া’ কার্যক্রম এরকমই একটি নতুন উদ্যোগ।

এর আওতায় ভারতের সেরা ১০০ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ পাচ্ছেন ১৯ হাজার শিক্ষার্থী। এর মধ্যে সাড়ে ৯ হাজার শিক্ষার্থীর জন্য রয়েছে বৃত্তি অথবা কম টিউশন ফিতে পড়ার সুযোগ।

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য আইসিসিআর প্রোগ্রামের আওতায় দুইশ বৃত্তিমূলক শিক্ষার সুযোগও দিচ্ছে ভারত সরকার।

অরিন/নিউজ টোয়েন্টিফোর

মন্তব্য