সাংবাদিকরা যেভাবে চাইবে, গণমাধ্যম আইন সেভাবেই হবে : তথ্যমন্ত্রী
সাংবাদিকরা যেভাবে চাইবে, গণমাধ্যম আইন সেভাবেই হবে : তথ্যমন্ত্রী

ফাইল ছবি

সাংবাদিকরা যেভাবে চাইবে, গণমাধ্যম আইন সেভাবেই হবে : তথ্যমন্ত্রী

মাসুদা লাবনী

জনস্বার্থে সাংবাদিকতা, সাংবাদকর্মীর সুরক্ষা-এই শ্লোগানে ব্রডকাষ্ট জার্নালিজম সেন্টারের তৃতীয় সম্মেলন শুরু হয়েছে। উদ্বোধন ঘোষণা করে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী বলেন, এমন সম্মেলনের মাধ্যমে মুক্ত সাংবাদিকতার সমস্যা আলোচনা করে সমাধান করার পথ পাবেন।  আর তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেন, সাংবাদিকরা যেভাবে চাইবে, গণমাধ্যম আইন সেভাবেই করবে সরকার।  

আজ শনিবার সকালে শাহবাগে বাঙলা একাডেমি মিলনায়তনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি অংশ নিয়ে স্পিকার বলেন, আইনি জটিলতা বা সমস্যা থাকলেও এ প্লাটফর্মের মাধ্যমে তা আলোচনা করুন।

গণমাধ্যম কর্মী আইন ও সংবাদকর্মীর সুরক্ষা বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে জ্যেষ্ঠ ও  সাংবাদিক নেতারা বলেন, আইন পাস হলে সাংবাদিকের পেশা, কাজ, চাকরি, বেতন সবই নিয়ন্ত্রণ করবে এই আইন। যে সব বিধি গণমাধম আইনে আছে তাতে সাংবাদিকদের সব অধিকার রক্ষা না হলে, তা শ্রম আইনে নিষ্পত্তি করার বিধান যুক্ত করার প্রস্তাবনা করে বিজেসি নেতৃবৃন্দ।

সাংবাদিক যেনও নিজেকে রক্ষা করার অধিকার ও আইন পায়, তা সব ইউনিয়ন ও সরকারকে নিশ্চিত করতে হবে বলেন ডিআরইউ সভাপতি।

সাংবাদিকের অধিকার রক্ষা না হলে, এ আইন রিভিউ না প্রত্যাখ্যান করবে সে সিদ্ধান্ত নিতে হবে এখনই, বলেন বক্তারা।

আলোচনা পর্বে অংশ নিয়ে প্রধান অতিথি তথ্য ও সম্পচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেন, কিছু বিষয় ত্রুটি-বিচ্যুতি আছে আইনে যা  হওয়া সমিচীন হয়নি। এসব সমস্যা চিহ্নিত করে সাংবাদিক নেতারা প্রস্তাবনা পাঠালে আইন পরিবর্ধন করা হবে। এ ব্যাপারে আমরা একমত। এ আইন হলে ভিজুয়্যাল মিডিয়ার সাংবাদিকদের স্বার্থ রক্ষা হবে।

news24bd.tv/রিমু