১৪৪ কি.মির টাইফুনের আঘাতে লণ্ডভণ্ড চীন
১৪৪ কি.মির টাইফুনের আঘাতে লণ্ডভণ্ড চীন

১৪৪ কি.মির টাইফুনের আঘাতে লণ্ডভণ্ড চীন

অনলাইন ডেস্ক

১৪৪ কিলোমিটার বেগে ধেয়ে আসা টাইফুন ‌‌চাবা’র আঘাতে বিধ্বস্ত হয়েছে চীন ও হংকংয়ের উপকূলীয় এলাকা। ঝড়ের কবলে পড়ে চীন সাগরে জাহাজ ডুবির ঘটনাও ঘটেছে। এতে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে ৩ জনকে। বাকিদের উদ্ধারে কাজ করছে কোস্টগার্ড।

এদিকে টাইফুনের প্রভাবে ভারি বৃষ্টি থেকে বন্যা দেখা দিয়েছে হাইনান প্রদেশে।

স্থানীয় সময় শনিবার (২ জুলাই) সকালে চীনের গুয়ান্ডং প্রদেশের ওপর দিয়ে বয়ে যায় শক্তিশালী টর্নেডো। ঝোড়ো হাওয়ায় উপড়ে যায় গাছপালা, ক্ষতিগ্রস্ত হয় বহু ঘরবাড়ি। এতে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে পুরো এলাকা। তবে টর্নেডোতে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।  

একইদিন শক্তিশালী টাইফুন ‘চাবা’ আঘাত হানে চীনের দক্ষিণাঞ্চলের উপকূলীয় এলাকায়। ঘণ্টায় ১৪৪ কিলোমিটার বেগে ধেয়ে আসা এ টাইফুনের কবলে পড়ে দক্ষিণ চীন সাগরে দুই টুকরো হয়ে ডুবে যায় একটি জাহাজ। এসময় জাহাজটিতে ৩০ জন ক্রু ছিলেন।  

জীবন বাজি রেখে ৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করে কোস্টগার্ড। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, সাহায্যকারী দল আসার আগেই জাহাজে থাকা অন্তত ২৭ জন উত্তাল সাগরে ভেসে গেছে। তাদের উদ্ধারে হেলিকপ্টারের সাহায্যে এখনো চলছে অভিযান।  

টাইফুনে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় হংকংয়ের উপকূলবর্তী এলাকাও। টাইফুনের প্রভাবে শনিবার ভোর থেকেই উত্তাল ছিল চীন সাগর। আগাম প্রস্তুতি হিসেবে হংকংয়ের আবহাওয়া দফতর শুক্রবার (১ জুলাই) ৮ নম্বর সতর্ক সংকেত জারি করে, যা পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বহাল রাখা হয়েছে।  

এদিকে টাইফুনের প্রভাবে ভারি বৃষ্টিতে হঠাৎ বন্যা দেখা দিয়েছে চীনের আরেক প্রদেশ হাইনানে। পানিতে ডুবে গেছে প্রদেশটির সানইয়া শহরের বেশিরভাগ রাস্তাঘাট। এতে চরম বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। বন্যায় আটকে পড়াদের উদ্ধারে তৎপর রয়েছে প্রশাসন।

news24bd.tv তৌহিদ