আনিসের আত্মহত্যার ঘটনায় হেনোলাক্সের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা
আনিসের আত্মহত্যার ঘটনায় হেনোলাক্সের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা

সংগৃহীত ছবি

আনিসের আত্মহত্যার ঘটনায় হেনোলাক্সের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন ডেস্ক

সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী গাজী আনিসকে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে হেনোলাক্স গ্রুপের মালিক নুরুল আমিন এবং তার স্ত্রী ফাতেমা আমিনের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (৫ জুলাই) দুপুরে শাহবাগ থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মওদুত হাওলাদার মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, গাজী আনিসের ভাই নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে হেনোলাক্স গ্রুপের মালিক নুরুল আমিন এবং তার স্ত্রী ফাতেমা আমিনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

হেনোলাক্স কোম্পানিতে বিনিয়োগকৃত এক কোটি ২৬ লাখ টাকা ফেরত না পাওয়ার হতাশায় গাজী আনিস (৫০) সোমবার (৪ জুলােই) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। তার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে যায়।

পরে মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ভোর সোয়া ৬টার দিকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে তার মৃত্যু হয়।

গাজী আনিসকে হাসপাতালে নিয়ে আসা মোহাম্মাদ আলী জানান, গাজী আনিস কুষ্টিয়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। হেনোলাক্স কোম্পানির কাছে তিনি এক কোটি ২৬ লাখ টাকা পেতেন। এ নিয়ে কয়েকবার সংবাদ সম্মেলনও করেন। টাকা ফিরে না পাওয়ার হতাশায় তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করে থাকতে পারেন।

শাহবাগ থানার এসআই গোলাম হোসেন বলেন, আনিসের গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। বাবার নাম ইব্রাহিম বিশ্বাস। তিনি হেনোলাক্স কোম্পানির কাছে এক কোটি ২৬ লাখ টাকা পান। দীর্ঘদিন ধরে এই টাকা না দেওয়ায় হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

গাজী আনিসের ভাই গাজী নজরুল ইসলাম বলেন, আমার ভাই হেনোলাক্স কোম্পানির কাছে এক কোটি ২৬ লাখ টাকা পাবেন। দীর্ঘদিন ধরে টাকা ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করেছেন।

গত ২৯ মে গাজী আনিস প্রেসক্লাবে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। সেসময় তিনি জানান, ২০১৬ সালে হেনোলাক্স গ্রুপের কর্ণধার মো. নুরুল আমিন ও তার স্ত্রী ফাতেমা আমিনের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। সেই সূত্রেই ২০১৮ সালে তিনি এই টাকা হেনোলাক্স গ্রুপে বিনিয়োগ করেন।
news24bd.tv/আলী