ভারতকে গুঁড়িয়ে নতুন ইতিহাস ইংল্যান্ডের
ভারতকে গুঁড়িয়ে নতুন ইতিহাস ইংল্যান্ডের

সংগৃহীত ছবি

ভারতকে গুঁড়িয়ে নতুন ইতিহাস ইংল্যান্ডের

অনলাইন ডেস্ক

জনি বেয়ারস্টো আর জো রুটের ব্যাটে ভর করে টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে অষ্টম সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড গড়ল ইংল্যান্ড। ১৯৪৮ সালে হেডিংলিতে ৪০৪ তাড়া করে জিতেছিল অস্ট্রেলিয়া। যা এখন পর্যন্ত ইংল্যান্ডের মাটিতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ড। তার ৭৪ বছর পর ইংল্যান্ডের মাটিতে চতুর্থ ইনিংসে সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ড লেখা হলো নতুন করে।

এজবাস্টনে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। এই জয়ে ২-২ এ ড্র হল বহুল আলোচিত এই সিরিজ, যার পঞ্চম ম্যাচ গত বছর করোনার কারণে স্থগিতাদেশ পেয়েছিল।

এটিই ইংল্যান্ডের টেস্ট ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করার রেকর্ড। এর আগে ২০১৯ সালে হেডিংলিতে ৩৫৮ তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৯ উইকেটে ৩৬২ তুলে জিতেছিল ইংল্যান্ড। যা এতদিন ছিল তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রান তাড়া করার ম্যাচ।

সিরিজ হার এড়াতে হলে এজবাস্টন টেস্টে ইংল্যান্ডের জয়ের বিকল্প ছিল না। যদিও ম্যাচের প্রথম তিন দিন ভারত একচ্ছত্র আধিপত্য দেখিয়েছে। ৩৭৮ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়ে ভারত ইংল্যান্ডের জয়ের পথটাও কঠিন করে তুলেছিল। তবে ইংলিশদের ওয়ানডে মেজাজের ব্যাটিং বিরাট কোহলিদের সাজানো বিরাট লক্ষ্যের দেয়াল টপকে যায় অনায়াসেই।

৩ উইকেটে ১২৫ রান নিয়ে চতুর্থ দিনে খেলতে নামা ভারত দ্বিতীয় ইনিংসে অলআউট হয় ২৪৫ রানে। তখনও বেন স্টোকসের দলের জয়কে অসম্ভব মনে হচ্ছিল, কারণ এজবাস্টনে কোনো দলই ৩০০ বা তার বেশি রান তাড়া করে জিততে পারেনি। তবে ভারতের স্বপ্নকে দুঃ স্বপ্নে পরিণত করে দুই ওপেনার অ্যালেক্স লিস ও জ্যাক ক্রোলি ওয়ানডে মেজাজে ইনিংস শুরু করেন। ১০৭ রানে উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ক্রোলির বিদায়ে (৭৬ বলে ৪৬ রান)।

অল পোপ ডাকের শিকার হওয়ার পর ১০৯ রানে থামতে হয় লিসকেও। তার আগে ৬৫ বলে ৫৬ রান করেন এই ওপেনার। এরপর প্রতিরোধ গড়েন তোলেন ফর্মেরর্মে তুঙ্গে থাকা জো রুট ও জনি বেয়ারস্টো। চতুর্থ উইকেটে দেড়শ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে দুজনে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করেন। শেষ দিনে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল আরও ১১৯ রান। কাঙ্ক্ষিত সেই রানের জন্য পঞ্চম দিনের শুরু থেকেই ভারতের ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকেন রুট ও বেয়ারস্টো। অবিশ্বাস্য ছন্দে থাকা রুট হাঁকান ক্যারিয়ারের ২৮তম সেঞ্চুরি। বর্তমান ক্রিকেটারদের মধ্যে তিনিই এখন সবচেয়ে বেশি টেস্ট সেঞ্চুরির মালিক।

এরপর সেঞ্চুরির মাইলফলক স্পর্শ করেন বেয়ারস্টোও। শেষপর্যন্ত ইংল্যান্ডের আর কোনো উইকেটের পতনই ঘটেনি। প্রথম সেশনেই স্টোকসের দল পৌঁছে যায় জয়ের বন্দরে। ৭৬.৪ ওভারে ওভারপ্রতি প্রায় ৫ রান তুলে ইংল্যান্ড জয় নিশ্চিত করে। রুট ১৭৩ বলে ১৪২ ও বেয়ারস্টো ১৪৫ বলে ১১৪ রান করে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে প্রথম টেস্ট হয়েছিল ড্র, দ্বিতীয় ম্যাচে ১৫১ রানে জয় পায় ভারত। তৃতীয় ম্যাচে ৭৬ রানের জয়ে ঘুরে দাঁড়ায় ইংলিশরা। চতুর্থ ম্যাচে ১৫৭ রানের জয় পায় ভারত।

news24bd.tv/আলী