কুয়েট ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীকে হামলা মারধরে তদন্ত কমিটি
কুয়েট ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীকে হামলা মারধরে তদন্ত কমিটি

কুয়েট ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীকে হামলা মারধরে তদন্ত কমিটি

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) শিক্ষার্থী নাহিন রহমানকে ক্যাম্পাসের মধ্যে হামলা ও মারধরের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে কর্তৃপক্ষ। তদন্ত কমিটিকে ২৫ জুলাই এর মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ওই শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেনের সাথে সাক্ষাৎ করেন। এসময় পরিচালক (ছাত্র কল্যাণ) ও অভিযোগকারী শিক্ষার্থীর সংশ্লিষ্ট হল প্রভোস্ট এবং কিছু শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

কুয়েটের জনসংযোগ ও তথ্য শাখার মুখপাত্র রবিউল ইসলাম সোহাগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, গত ৩ জুলাই রাতে ওই শিক্ষার্থী হামলার শিকার হয়েছেন বলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নিকট বিচার চেয়ে আবেদন করেন। এর প্রেক্ষিতে সুষ্ঠু তদন্তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণের সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। স্বাক্ষাতকালে ভাইস-চ্যান্সেলর এ বিষয়ে তদন্ত রিপোর্ট প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে বিশ^বিদ্যালয়ের আইনানুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আশ্বস্ত করেন।

তিনি আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীর উপর হামলার মতো অনাকাঙ্খিত ঘটনা কোনোভাবেই কাম্য নয় এবং এ সকল অনাকাঙ্খিত ঘটনার তীব্র নিন্দা জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

জানা যায়, রোববার দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে ক্যাম্পাসের দুর্বার বাংলা সংলগ্ন রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় তার মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।

শিক্ষার্থী নাহিন রহমান তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানান, সম্প্রতি কুয়েটে ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. সেলিমের অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় বিচার দাবি করে তিনি আন্দোলনে সক্রিয় থাকায় তার ওপর হামলা হতে পারে।

উল্লেখ্য, ওই শিক্ষকের মৃত্যুর ঘটনায় ২০২২ সালের ৫ জানুয়ারি ৪৪ জন জনকে শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিস্কার করা হয়।

news24bd.tv তৌহিদ