‌‘কোনো খেলার মাঠে হাট দেওয়া হবে না’
‌‘কোনো খেলার মাঠে হাট দেওয়া হবে না’

‌‘কোনো খেলার মাঠে হাট দেওয়া হবে না’

অনলাইন ডেস্ক

মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, আমাদের পুরাতন ঢাকার চকবাজার, বকশিবাজার এলাকার এই রাস্তাটি অত্যন্ত সরু। সড়কটি প্রশস্ত করার জন্য এই এলাকার জনগণের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ছিল। তাই উমেষ দত্ত সড়ককে ৫০ ফুট প্রশস্ত করা হচ্ছে।

আজ বুধবার (৬ জুলাই) দুপুরে নগরীর বকশিবাজারস্থ উমেশ দত্ত সড়কের প্রশস্তকরণে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) পরিচালিত উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এ কথা বলেন।

আমরা সড়কটি প্রশস্ত করার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। ৪০ ফুট মূল সড়ক এবং ২ পাশে ৫ ফুট করে ১০ ফুট হাঁটার পথ (ফুটপাত)। সবমিলিয়ে ৫০ ফুট প্রশস্ত একটি সড়ক ব্যবস্থা আমরা পুরাতন ঢাকার মানুষকে উপহার দেবো।

শেখ তাপস বলেন, আমরা বলেছি -- আমাদের কোনো খেলার মাঠে হাট দেওয়া হবে না। আমরা খেলার মাঠে হাট দেইনি। এবার হাটের সংখ্যাও আমরা কমিয়ে দিয়েছি এবং আরও দূরবর্তী বিস্তৃত করেছি। মাত্র ১০টি হাট দেওয়া হয়েছে। সেই হাটগুলোতে যদি কোনো ইজারাদার কোনো শর্ত ভঙ্গ করে, তাহলে আমাদের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। কোনোরকম বিশৃঙ্খলা হোক আমরা সেটা কোনোভাবেই কামনা করব না।

শেখ তাপস বলেন, শুধু জাজেস কোয়ার্টার ও অফিসার্স কোয়ার্টারের জন্য তিনটি সুনির্দিষ্ট স্থানে আমরা কোরবানির পশু জবাইয়ের ব্যবস্থা করছি। এছাড়া ওয়ার্ডভিত্তিক কোনো নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাইয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে না। এলাকাবাসী ওয়ার্ডভিত্তিক তাদের মতো করেই তারা পশু জবাই দিবে। তবে জবাইয়ের পরপর দুপুর ১২টার মধ্যেই তারা সেই পশুর বর্জ্য আমাদের (ওয়ার্ডভিত্তিক) নির্দিষ্ট বর্জ্য সংগ্রহকারীর মাধ্যমে বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্রে পৌঁছে দেবে।

news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর