এই মাসের শেষেই জিম্বাবুয়েতে স্বর্ণ মুদ্রা চালু
এই মাসের শেষেই জিম্বাবুয়েতে স্বর্ণ মুদ্রা চালু

এই মাসের শেষেই জিম্বাবুয়েতে স্বর্ণ মুদ্রা চালু

অনলাইন ডেস্ক

মুদ্রাস্ফীতির দেশ আফ্রিকার জিম্বাবুয়েতে চালু হতে যাচ্ছে স্বর্ণমুদ্রা। এই মাসের শেষের দিকে এই মুদ্রা চালু করবে দেশটি। ওই স্বর্ণমুদ্রার নাম ‘মোসি-ওয়া-তুনিয়া গোল্ড কয়েন’ হবে বলে জানিয়েছে দেশটি। এছাড়াও আগামী পাঁচ বছরের জন্য মার্কিন ডলারকে বৈধ টেন্ডার হিসেবে চালুর পরিকল্পনা প্রকাশ করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

জিম্বাবুয়ের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মূল সুদের হার এই মাসে দ্বিগুনের বেশি বেড়ে ২০০ শতাংশে পৌঁছেছে। এর আগে বার্ষিক মুদ্রাস্ফীতি বেড়ে যায় প্রায় ১৯০ শতাংশের বেশি। এই বছর মূল মুদ্রার বিপরীতে জিম্বাবুয়ের ডলারের মূল্য হ্রাস পেয়েছে।

নতুন চালু হতে যাওয়া স্বর্ণ মুদ্রার প্রতিটিতে থাকবে এক টরি আউন্স ২২ ক্যারেট স্বর্ণ। রিজার্ভ ব্যাংক অব জিম্বাবুয়ের গভর্নর জন পি মাঙ্গুদিয়া এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ২৫ জুলাই থেকে এসব মুদ্রা বাজারে ছাড়া হবে।

স্বর্ণ, রুপা এবং প্লাটিয়ামের মতো মূল্যবান ধাতু পরিমাপের একক হচ্ছে টরি আউন্স। মধ্য যুগ থেকে চলে আসা এক টরি আউন্সে ৩১.১০ গ্রামের সমান হয়।

গভর্নর জন পি মাঙ্গুদিয়া বলেন, ‘স্বর্ণের মুদ্রাগুলো স্থানীয় মুদ্রা এবং মার্কিন ডলার এবং অন্যান্য বিদেশি মুদ্রায় স্বর্ণের বিদ্যমান আন্তর্জাতিক মূল্য এবং উৎপাদন খরচের ভিত্তিতে নির্ধারিত মূল্যে জনসাধারণের কাছে বিক্রি করা হবে। ’

ওই বিবৃতিতে জানানো হয়, প্রতিটি স্বর্ণ মুদ্রা শনাক্ত করা হবে একটি সিরিয়াল নাম্বার দিয়ে। আর খুব সহজেই এটি নগদে পরিণত করা যাবে, স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক বাজারেও তা করা যাবে।

এই মুদ্রাকে ডাকা হবে ‘মোসি-ওয়া-তুনিয়া গোল্ড কয়েন’ নামে। এর অর্থ ‘বজ্র তৈরিকারী ধোঁয়া’। জিম্বাবুয়ে ও জাম্বিয়া সীমান্তে অবস্থিত ভিক্টোরিয়া ফলস এর প্রতি ইঙ্গিত করে এমন নাম রাখা হয়েছে।

মুদ্রা সংকট মোকাবিলায় জিম্বাবুয়ে সরকারের নেওয়া পদক্ষেপের অংশ হিসেবে স্বর্ণ মুদ্রা চালুর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

গত মাসে জিম্বাবুয়ের বার্ষিক মুদ্রাস্ফীতি পৌঁছায় ১৯১.৬ শতাংশে। এই বছরের শুরু থেকে মার্কিন ডলারের বিপরীতে জিম্বাবুয়ের ডলারের দাম কমেছে দুই-তৃতীয়াংশ।

গত ১ জুলাই থেকে রিজার্ভ ব্যাংক অব জিম্বাবুয়ে মূল সুদের হার ৮০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২০০ শতাংশে নিয়ে যায়। জীবন যাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি নিয়ন্ত্রণে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

news24bd.tv তৌহিদ