বেগমগঞ্জে আধিপত্য নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা
বেগমগঞ্জে আধিপত্য নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা

বেগমগঞ্জে আধিপত্য নিয়ে ছাত্রলীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা

নোয়াখালী প্রতিনিধি

দলীয় কোন্দল ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য মো. হাসিবুল বাশারকে (২৫) কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে এক আসামিকে আটক করেছে পুলিশ। তবে পুলিশ তাৎক্ষণিক আটক আসামির নাম ঠিকানা জানাতে পারেনি। দলীয় কোন্দল নিয়ে যুবলীগ কর্মীসহ সন্ত্রাসীরা হত্যা করেছে বলে ধারণা করছে পুলিশ ও স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের কোটরা মহব্বতপুর গ্রামের সুবাহান মার্কেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হাসিবুল বাশার উপজেলার ২নং গোপালপুর ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের কোটরা মহব্বতপুর গ্রামের ইউনুস মৌলভীর বাড়ির মৃত আবুল বাশারের ছেলে।

বেগমগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাহাত চৌধুরী জানান, পূর্ব শক্রতার জের ও আধিপত্য বিস্তার নিয়ে উপজেরার গোপালপুর ইউনিয়নের কোটরা মহব্বতপুর গ্রামের বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী যুবলীগ নামধারী হাসান, তাহের, মাদক ব্যবসায়ী মাসুম বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গোপালপুর ইউনিয়নের সুবাহান মার্কেট এলাকায় হাসিবুলের ওপর হামলা চালায়। তারা হাসিবুলকে গলা কাটে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে দুপুরে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

রাহাত চৌধুরী অভিযোগ করে আরো বলেন, কয়েক বছর আগে জেলা আওয়ামী লীগ নেতা জাবেদ মিয়ার হাত ধরে গোপালপুর ইউনিয়নের সালাউদ্দিন নামে এক ব্যক্তি বিএনপি থেকে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আসেন। এরপর সালাউদ্দিনের হাত ধরে হাসান বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হন। হাসানের অপর সহযোগী মাসুম এলাকার চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী। তাদের বিরুদ্ধে বেগমগঞ্জ থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। যুবলীগের কর্মীরা এ ঘটনার সাথে জড়িত বলে তিনি ধারণা করছেন। পুলিশ তাৎক্ষণিক একজনকে আটক করেছে। অভিযুক্ত অপর আসামিদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

news24bd.tv তৌহিদ