‘সম্পর্ক ভেঙে গেলে ধর্ষণ মামলা নয়’
‘সম্পর্ক ভেঙে গেলে ধর্ষণ মামলা নয়’

সংগৃহীত ছবি

 ভারতের সুপ্রিম কোর্ট  

‘সম্পর্ক ভেঙে গেলে ধর্ষণ মামলা নয়’

অনলাইন ডেস্ক

এক পুরুষের সঙ্গে স্বেচ্ছায় সম্পর্কে থাকা নারী সম্পর্কের অবনতি ঘটলে, ওই পুরুষের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করতে পারে না বলে জানিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। এক পুরুষকে আগাম জামিন দেয়ার সময় এ কথা জানায় দেশটির সর্বোচ্চ আদালত।

শীর্ষ আদালত ধর্ষণ, অপ্রাকৃতিক অপরাধ এবং ফৌজদারি ভয় দেখানোর অভিযোগে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকে আগাম জামিন দিয়েছে।

বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তা এবং বিক্রম নাথের বেঞ্চ বলছে, এটি অভিযোগকারীর স্বীকারোক্তিমূলক মামলা ছিল।

তিনি চার বছর ধরে আপিলকারীর সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন। এ ছাড়া তার আইনজীবী স্বীকার করেছেন, সম্পর্ক শুরু হওয়ার সময় তার বয়স ছিল ২১।

“উক্ত সত্যের পরিপ্রেক্ষিতে অভিযোগকারী স্বেচ্ছায় আপিলকারীর সঙ্গে থেকেছেন। তাই এখন যদি সম্পর্কটি কার্যকর না থাকে, তবে আইপিসি ৩৭৬ ধারার অধীনে এফআইআর দায়ের করতে পারেন না।

আনসার মোহাম্মদ নামে এক ব্যক্তি ১৯ মে রাজস্থান হাইকোর্টের একটি আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে আগাম জামিন আবেদন করেন। তবে ৩৭৬ (২)(এন), ৩৭৭ ধারার ফৌজদারি অপরাধ এবং ১৯৭৩ এর ৪৩৮ ধারা এবং ৫০৬ আইপিসি এর অধীনে তার আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করেছিলেন বিচারক।

হাইকোর্টের বিচারক তার আদেশে বলেছিলেন, ‘এটি একটি স্বীকৃত অবস্থান। আবেদনকারী অভিযোগকারীকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সঙ্গে সম্পর্ক করেছিলেন। তাদের সম্পর্কের কারণে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়েছিল। অপরাধের গভীরতা বিবেচনা করে আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করা হয়। ’

news24bd.tv/আলী