বিশ্বজিৎ হত্যা : যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি কারাগারে
বিশ্বজিৎ হত্যা : যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি কারাগারে

বিশ্বজিৎ হত্যা : যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি কারাগারে

বিশ্বজিৎ হত্যা : যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি কারাগারে

সরকার হায়দার, পঞ্চগড়

২০১২ সালের আলোচিত বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মোহাম্মদ আলাউদ্দিনকে (৩৫) পঞ্চগড় কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আজ শনিবার দুপুরে পঞ্চগড় চীফ জুডিশিয়াল আদালতের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৫ এর বিচারক অলরাম কার্জী তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে, গত শুক্রবার (১৫ জুলাই) ভোরে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বগুড়ার শিবগঞ্জ থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামি আলাউদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে। রাতেই শিবগঞ্জ থানা পুলিশ পঞ্চগড়ের আটোয়ারী থানা পুলিশের কাছে আলাউদ্দিনকে হস্তান্তর করে।

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মোহাম্মদ আলাউদ্দিন পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার ছোটধাপ গ্রামের হবিবুর রহমানের ছেলে। ২০১২ সালে সে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে লেখাপড়া করতো। ২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর বিশ্বজিৎ হত্যাকাণ্ডের পর মোহাম্মদ আলাউদ্দিন আত্মগোপন করে। সে ওই মামলার ১৩ নম্বর আসামি।

পলাতক অবস্থায় সে শিবগঞ্জে বিয়ে করে। গত ৭ জুলাই ঈদের ছুটিতে স্ত্রীসহ বগুড়ার মোকামতলা বন্দরে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে যায় আলাউদ্দিন। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে শুক্রবার ভোরে আলাউদ্দিনের শ্বশুরবাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আটোয়ারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল রানা সাজাপ্রাপ্ত আসামি আলাউদ্দিনকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিবগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় তাকে গ্রেপ্তার করে শুক্রবার দিবাগত রাতে আটোয়ারী থানায় আনা হয়। পরে শনিবার তাকে আদালতে তোলা হলে বিচারক আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাকে জেলা কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

news24bd.tv রিমু