কোহলির পাশে শোয়েব আখতার
কোহলির পাশে শোয়েব আখতার

সংগৃহীত ছবি

কোহলির পাশে শোয়েব আখতার

অনলাইন ডেস্ক

ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে সময় কাটাচ্ছেন বিরাট কোহলি। ক্রিকেটের প্রতি নিবেদনে ঘাটতি না থাকলেও কোনোভাবেই ছন্দে ফিরতে পারছেন না তিনি। সবশেষ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টিতেও হাসেনি তাঁর ব্যাট। সব মিলিয়ে কোহলিকে ভারতীয় দল থেকে বাদ পক্ষে আওয়াজ তুলেছেন সাবেকরা।

টেস্টে ২৭ সেঞ্চুরি, ওয়ানডেতে ৪৩টি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিরাট কোহলির ৭০ সেঞ্চুরির চেয়ে বেশি আছে আর কেবল শচিন টেন্ডুলকার ও রিকি পন্টিংয়ের। এক সময় যিনি অনায়াসে তিন অঙ্কের স্বাদ নিতেন, এখন তিনি রান করতেই ভুগছেন। ফর্মহীন কোহলির ভারত দলে জায়গা নিয়ে তাই উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন, যা অবাক করেছে শোয়েব আখতারকে।

কোহলিকে ছাড়া ভারত দল যেন ভাবতেই পারছেন না পাকিস্তানের সাবেক গতি তারকা। সমালোচকদের ভারতীয় ব্যাটসম্যানের সামর্থ্যের কথা মনে করিয়ে দিয়ে শোয়েব বললেন, এত সেঞ্চুরি তো আর বাড়ির উঠানে করেনি কোহলি।

কোহলির ফর্মহীনতা এখন ক্রিকেট বিশ্বে আলোচনার মূল বিষয়। সমালোচনার মুখে যেমন পড়ছেন, সমর্থনও কম পাচ্ছেন না তিনি। সম্প্রতি কোহলির জায়গায় তরুণদের খেলানোর কথা বলেছিলেন কপিল দেব। ভারতের প্রথম বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়কের প্রতি সম্মান রেখে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে কোহলির পাশে দাঁড়ালেন শোয়েব।

তিনি বলেন, কপিল দেব আমার বড় এবং তার একটি মতামত থাকতে পারে। নিজের মত থাকা খারাপ কিছু নয়। যেহেতু সে একজন গ্রেট ক্রিকেটার তাই কপিল দেব কিছু বললে, সেটা বুঝতে হবে। তার অভিমত দেওয়ার অধিকার আছে। তবে, একজন পাকিস্তানি হিসেবে কেন আমি কোহলিকে সমর্থন করছি? বিষয়টা বুঝতে হবে, তার ৭০টি সেঞ্চুরি আছে। আর সেগুলো সে বাড়ির উঠানে বা ক্যান্ডি ক্রাশ খেলতে খেলতে করেনি।

বছরের পর বছর ধরে কোহলির রানের জোয়ারে ভাটার টান প্রথম আসে সেঞ্চুরি খরা দিয়ে। রান পেলেও তিনি সেঞ্চুরি পাচ্ছিলেন না। ক্রমে সেটিই এখন রূপ নিয়েছে ফর্মহীনতায়। ২০১৯ সালের পর কোনো সংস্করণেই আর সেঞ্চুরি না পাওয়া কোহলি টেস্টে সবশেষ ১২ ইনিংসে ফিফটি করতে পারেন কেবল একটি। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতেও সাম্প্রতিক সময়ে ভুগছেন তিনি রান করতে।

তবে এর আগে কোহলি কী করেছেন বিশ্ব ক্রিকেটে, সেটা মনে করিয়ে দিতে চাইলেন শোয়েব। সময়ের সেরা ভারতীয় ব্যাটসম্যানকে দল থেকে বাদ দেওয়ার ভাবনায় বিস্মিত তিনি। তিনি বলেন, ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়তে পারে কোহলি, কেউ স্বপ্নেও কীভাবে এমনটা ভাবতে পারে? লোকে বলছে, তাকে (কোহলি) বাদ দেওয়া উচিত। বিরাট কোহলির সময় শেষ। তার ক্যারিয়ারে আর কিছুই বাকি নেই। ক্যারিয়ারে সে আর বেশি কিছু করতে পারবে না। তাদেরকে বলছি, বিরাট কোহলি অসাধারণ ক্রিকেটার। গত ১০ বছরে সেরা কোনো ক্রিকেটার যদি থাকে, সেটা বিরাট। এক-দুটি বাজে বছর কাটছে, তবে সে এখনও রান করছে, স্রেফ সেঞ্চুরি পাচ্ছে না।

কঠিন এই সময় কাটিয়ে ওঠার পরামর্শও কোহলিকে দিলেন শোয়েব। বললেন, সমালোচনায় কান না দিয়ে শুধুমাত্র নিজের খেলায় মনোযোগ দিতে। তিনি আরও বলেন, বিরাট কোহলির জন্য আমার পরামর্শ হবে সহজ-তার ভুলে যাওয়া উচিত যে সে ভারতের অধিনায়ক ছিল এবং তার ওপর সব আলো ছিল। তাকে স্রেফ তার ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দেওয়া উচিত। তাকে ঘিরে সমালোচনা তাকে আরও শক্তিশালী করছে এবং সে আরও বড় ক্রিকেটার হয়ে ফিরবে।

news24bd.tv/আলী