৯৭ শতাংশ গ্রাহকের পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব
৯৭ শতাংশ গ্রাহকের পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব

প্রতীকী ছবি

৯৭ শতাংশ গ্রাহকের পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব

তাসলিম তৌহিদ

৯৭ শতাংশ গ্রাহকের পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করেছে ঢাকা ওয়াসার টেকনিক্যাল কমিটি। মানুষের আয়ের সক্ষমতার উপর নির্ভর করে রাজধানীকে ১০টি জোনে বিভক্ত করে ৭ ক্যাটাগরিতে পানির দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়। আবাসিকে নিন্ম পর্যায়ে তিন টাকা কমলেও উচ্চ পর্যায়ে ২২ টাকা বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে। আজ রোববার সোনারগাঁও হোটেলে এলাকা ভিত্তিক পানির দাম বৃদ্ধির গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

ঢাকা ওয়াসা পানির উৎপাদন যে পরিমাণ খরচ হয়, তার চেয়ে অনেক কম দামে প্রায় ৩ লাখ ৭৫ হাজার গ্রাহককে পানি সরবারহ করে। যার ফলে সরকারি ভর্তুকি ধনী-গরিব সকলের জন্য সমান হচ্ছে। এ অবস্থায় নতুন করে এলাকা ভিত্তিক পানির দাম নির্ধারণ করার উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা ওয়াসা।

ওয়াটার এইডের সহযোগিতায় প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে উচ্চ আয়ের গ্রাহকের জন্য প্রতি ইউনিট ৩৭ টাকা ৬০ পয়সা, উচ্চ মধ্যম আয়ের জন্য ৩১ টাকা ২৫ পয়সা, মধ্যম আয়ের জন্য ২৫ টাকা, নিম্ন মধ্যম আয়ের জন্য ১৮ টাকা ৭৫ পয়সা, নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ১২ টাকা ৫০ পয়সা ও বাণিজ্যিক ভবনে ৫০ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে।  

এলাকার মৌজার দাম, গৃহস্থালি আয়, হোল্ডিং ট্যাক্স এসবের উপর নির্ভর করে এলাকা ভিত্তিক পানির দাম প্রস্তবনা করা হয়েছে বলে জনান সংশ্লিষ্টরা।

ঢাকা ওয়াসার এমডি জানান, প্রস্তাবিত দামের বিষয়ে গ্রাহক পর্যায়ে আলোচনা করা হবে। প্রস্তাবনা পর্যালোচনা করে পরবর্তী প্রদক্ষেপ নেবে তারা।

অনুষ্ঠানে এলজিআরডি মন্ত্রী বলেন, ওয়াসার পানির দাম যৌক্তিক হতে হবে।

তবে টেকনিক্যাল কমিটির এই প্রস্তবনা বাস্তবায়ন হলে ওয়াসার বাৎসরিক আয় বাড়বে ৩০ শতাংশ।

news24bd.tv/রিমু