'রাশিয়ার সামরিক লক্ষ্য এখন আর দোনবাসে সীমাবদ্ধ নেই'
'রাশিয়ার সামরিক লক্ষ্য এখন আর দোনবাসে সীমাবদ্ধ নেই'

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ

'রাশিয়ার সামরিক লক্ষ্য এখন আর দোনবাসে সীমাবদ্ধ নেই'

অনলাইন ডেস্ক

ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে শুরু হয় এই অভিযান। এরইমধ্যে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি নগরী দখলে নিয়েছে রুশ বাহিনী। শরণার্থী হয়েছেন লাখ লাখ মানুষ।

চলমান যুদ্ধে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, কিয়েভকে পশ্চিমা দেশগুলোর অবিরাম সমরাস্ত্র সরবরাহের কারণে রাশিয়ার সামরিক লক্ষ্য এখন আর দোনবাস অঞ্চলে সীমাবদ্ধ নেই। রুশ রাষ্ট্রীয় এক বার্তা সংস্থায় দেওয়া সাক্ষাৎকারে ল্যাভরভ একথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইউক্রেনের প্রতি পশ্চিমা দেশগুলোর সমরাস্ত্র সরবরাহের কারণে ক্রেমলিনের হিসাব-নিকাশ পাল্টে গেছে। পশ্চিমা দেশগুলো যদি ইউক্রেনকে আরো বেশি সমরাস্ত্র সরবরাহ করার মাধ্যম পরিস্থিতি আরো বেশি ঘোলাটে করে ফেলতে চায় তাহলে রাশিয়ার ভৌগোলিক লক্ষ্যমাত্রা বর্তমান সীমারেখাও অতিক্রম করে যাবে।

তিনি বলেন, গত মার্চ মাসে ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার শান্তি আলোচনা ভেঙে যাওয়ার পর মস্কো ভৌগোলিক লক্ষ্যমাত্রা পুনর্নিধারণ করে। তবে ওই আলোচনায় ইউক্রেন আন্তরিকতা দেখালে রাশিয়া এপ্রিলের মাঝামাঝি সময়ে সামরিক অভিযান বন্ধ করে দিত। কারণ, তখন রাশিয়ার একমাত্র লক্ষ্য ছিল দোনেস্ক ও লুহানস্ক নিয়ে গঠিত অঞ্চল দোনবাস।

ল্যাভরভ বলেন, কিন্তু এখন দোনেস্ক ও লুহানস্ক ছাড়াও আরো বেশ কিছু অঞ্চলকে লক্ষ্যবস্তুর মধ্যে নিয়ে আসা হয়েছে। এসব অঞ্চলের মধ্যে রয়েছে খেরসন ও জাপোরিঝা।

সূত্র : আল-জাজিরা 

news24bd.tv/রিমু