আদালত চত্বরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নিহত ১ 
আদালত চত্বরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নিহত ১ 

প্রতীকী ছবি

আদালত চত্বরে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নিহত ১ 

মো.বুরহান উদ্দিন, সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জ আদালত চত্বরে প্রতিপক্ষের উপর্যুপুরি ছুরিকাঘাতে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আদালত চত্বরের আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীরা হতভম্ব হয়ে পড়েন।

 

নিহতের নাম খোকন মিয়া (৫০)। তিনি জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার গলাখাল গ্রামের ফটিক মিয়ার ছেলে।
 
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আদালত এলাকার আইনজীবী সহকারী সমিতির কার্যালয় প্রাঙ্গণে দুপুর সাড়ে ১২ টায় খোকন মিয়াকে ঘিরে দাঁড়ায় কয়েকজন। এসময় একজন খোকন মিয়াকে ঘুষি মারে। আরেকজন ছুরিকাঘাত করতে থাকে। অন্য আরেকজনও আঘাত করতে থাকে। রক্তাক্ত খোকন মিয়াকে তাৎক্ষণিক সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রত্যক্ষদর্শী আইনজীবী সহকারী মিফতাউল আলম বলেন, হত্যা করার উদ্দেশ্যেই আঘাত করা হয়েছিল ওই ব্যক্তিকে।

আরেক প্রত্যক্ষদর্শী আইনজীবী হাবিবুর রহমান বলেন, ধারালো ছুরিকাঘাত দিয়ে আঘাতের সময় বুঝা গেছে ঘটনাটি পূর্ব পরিকল্পিত।

খোকন মিয়ার চাচাতো ভাই মাসুক মিয়া জানান, গ্রামের লাল মিয়ার সঙ্গে বাড়ীর জায়গা নিয়ে বিরোধ ছিল। এ নিয়ে মামলার তারিখে এসেছিলেন তারা। তিনি আদালত প্রাঙ্গণের এক দোকানে বসেছিলেন। তার পাশ থেকেই খোকন মিয়া ওঠে আসেন। এসময় লাল মিয়ার ছেলে ফয়েজ, বাদশা মিয়ার ছেলে সাহান, আফরোজ মিয়ার ছেলে সেবুল ও সাজিদ তার ভাই খোকন মিয়াকে উপর্যুপুরি ছুরিকাঘাতে খুন করে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত ডা. রবীন্দ্র তালুকদার জানান, গুরুতর আহত খোকন মিয়াকে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই মারা যান। নিহতের শরীরে বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাত পাওয়া গেছে।

পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক ফয়েজ আহমদ, সাজিদ মিয়া ও সেবুল মিয়াকে আটক করা হয়েছে।  

news24bd.tv/রিমু