হেডফোন কানে রেললাইন দিয়ে হাঁটছিল কিশোর, যা ঘটল
হেডফোন কানে রেললাইন দিয়ে হাঁটছিল কিশোর, যা ঘটল

হেডফোন কানে রেললাইন দিয়ে হাঁটছিল কিশোর, যা ঘটল

অনলাইন ডেস্ক

হেডফোন কানে দিয়ে রেললাইন ঘেঁষে হাঁটছিল কিশোর সাইফুল ইসলাম (১৬)। হঠাৎ পেছন থেকে ট্রেন তাকে ধাক্কা দেয়। এতে প্রাণ হারায় সাইফুল। শনিবার কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার সদকী ইউনিয়নের দিঘিরপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

সাইফুল ইসলাম স্থানীয় জিডি শামছুদ্দিন আহমেদ কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্র ছিল। সে দরবেশপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে।

পোড়াদহ জিআরপি থানার পুলিশ ও স্থানীয় ব্যক্তিরা জানান, শনিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে সাইফুল ইসলাম দুই কানে হেডফোন দিয়ে দিঘিরপাড়া এলাকায় কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী রেললাইন ঘেঁষে হাঁটছিল। এ সময় নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস ট্রেন তাকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়।

এতে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে স্বজনেরা তার লাশ বাড়িতে নিয়ে যান। খবর পেয়ে সন্ধ্যায় রেলওয়ে পুলিশ ওই বাড়িতে যায়।

কুমারখালী রেলওয়ের স্টেশনমাস্টার শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘শুনেছি, নিহত কিশোর হেডফোন কানে দিয়ে রেললাইন ঘেঁষে হাঁটছিল। এ সময় রাজবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা নকঁশীকাথা এক্সপ্রেস ট্রেনটি তাকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। ’

পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকলে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন পোড়াদহ রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনজের আলী।

তিনি বলেন, ট্রেনের ধাক্কায় একজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ

সম্পর্কিত খবর