ওডেসা বন্দরে হামলার দাবি প্রত্যাখ্যান করল রাশিয়া
ওডেসা বন্দরে হামলার দাবি প্রত্যাখ্যান করল রাশিয়া

সংগৃহীত ছবি

ওডেসা বন্দরে হামলার দাবি প্রত্যাখ্যান করল রাশিয়া

অনলাইন ডেস্ক

গত শুক্রবার ইউক্রেনের খাদ্যশস্য রপ্তানির জন্য কৃষ্ণসাগরের বন্দরগুলো খুলে দিতে একটি চুক্তিতে সই করেছে রাশিয়া ও ইউক্রেন। তুরস্কের ইস্তাম্বুলে এ চুক্তি সম্পন্ন হয়। চুক্তি সই করার একদিন পর ইউক্রেনের দাবি, দেশটির কৃষ্ণসাগর উপকূলীয় ওডেসা বন্দরে রাশিয়া ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

এদিকে রাশিয়া জানায়, ওই হামলার সঙ্গে দেশটি কোনোভাবেই জড়িত নয় বরং মস্কো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

ইউক্রেনের খাদ্যশস্য রপ্তানির অন্যতম প্রধান বন্দর ওডেসা। তবে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী বলেছে, শনিবার সকালে রাশিয়ার দু’টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ওডেসা বন্দরের অবকাঠামোতে আঘাত হানে। এ সময় অপর দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র গুলি করে ভূপাতিত করা হয়।

ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওলেগ নিকোলেঙ্কো ওই হামলাকে ইস্তাম্বুল চুক্তির মুখে ‘থুথু মারার’ শামিল বলে মন্তব্য করেছেন। এই হামলার ফলে যদি ওই চুক্তি অকার্যকর হয়ে যায় তাহলে ‘বিশ্বে খাদ্য সংকট ঘনীভূত হওয়ার জন্য’ রাশিয়া দায়ী থাকবে বলে তিনি অভিযোগ করেন।  

এ বিষয়ে তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার বলেছেন, রুশ কর্মকর্তারা আঙ্কারাকে জানিয়েছেন, ওডেসা বন্দরে হামলার সঙ্গে রাশিয়া কোনো অবস্থায় জড়িত নয়।

তিনি বলেন, মস্কো ওই হামলার ব্যাপারে বিস্তারিত তদন্ত করে আঙ্কারাকে জানাবে বলে কথা দিয়েছে। ওডেসায় হামলা ইস্তাম্বুল চুক্তির সঙ্গে জড়িত বলে তুরস্ক রাশিয়ার কাছে বিষয়টি নিয়ে জানতে চেয়েছিল।

হুলুসি আকার বলেন, আমাদের মধ্যস্থতায় চুক্তি স্বাক্ষরের একদিন পর ওই হামলা হওয়ায় আমরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছিলাম।

প্রসঙ্গত, ইউক্রেনে সামরিক অভিযান চালাচ্ছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পরাশক্তি রাশিয়া। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ভোর থেকে শুরু হওয়া এই অভিযান প্রায় ৫ মাস ধরে চলছে। এরইমধ্যে ইউক্রেনের বেশ কয়েকটি নগরী দখলে নিয়েছে রুশ বাহিনী। বিশ্বে খাদ্য সংকট নিরিসনে চলমান যুদ্ধের মধ্যেই গত শুক্রবার তুরস্ক ও জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় ইউক্রেনের খাদ্যশস্য রপ্তানির জন্য কৃষ্ণসাগরের বন্দরগুলো খুলে দিতে একটি চুক্তিতে সই করে রাশিয়া ও ইউক্রেন।

news24bd.tv/রিমু