ককটেল ফাটিয়ে জুয়েলার্সে ডাকাতি : মানববন্ধন ও স্মারকলিপি 
ককটেল ফাটিয়ে জুয়েলার্সে ডাকাতি : মানববন্ধন ও স্মারকলিপি 

ককটেল ফাটিয়ে জুয়েলার্সে ডাকাতি : মানববন্ধন ও স্মারকলিপি 

অনলাইন ডেস্ক

ময়মনসিংহের ভালুকায় ককটেল ফাটিয়ে জুয়েলার্সে ডাকাতির সঙ্গে জড়িত সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও ব্যবসায়িক নিরাপত্তার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। রোববার সকালে বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন (বাজুস) ভালুকা শাখার আয়োজনে পৌরসভার শহীদ নাজিম উদ্দিন রোডে ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

পরে বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন (বাজুস) ভালুকা শাখার পক্ষ থেকে ডাকাতির সাথে জড়িত সন্ত্রাসীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও ব্যবসায়িক নিরাপত্তার দাবিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য, পুলিশ সুপার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা চেয়ারম্যান, মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ, বাজার ব্যবসায়ী সমিতিকে স্মারকলিপির অনুলিপি প্রদান করা হয়।

 

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জুয়েলার্স এসোসিয়েশন (বাজুস) ভালুকা শাখার সভাপতি শ্রী নিরঞ্জন বনিক, সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত কুমার শাহা বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক গবিন্দ কর্মকার, কোষাধ্যক্ষ তপন ভট্টাচার্য, সদস্য অরুন কৃষ্ণ কর্মকার, নিতাই কর্মকার, সুমন কর্মকার, তুতা মিয়া, মানিক বনিক, দিলিপ বনিক, মন্তুষ শাহা, সরোয়ারদি খান, রতন কর্মকার প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে পৌরসভার শহিদ নাজিম উদ্দিন রোডের প্রদীপ জুয়েলার্স নামের একটি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ঘটনার সময় ৪-৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ সশস্ত্র ডাকাতদল প্রাইভেটকারে এসে কয়েকটি ককটেল ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে জুয়েলার্সে ঢুকে দোকান মালিক অধীর কর্মকার ও তার ভাই সুধীর কর্মকারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে। পরে দোকানের কাউন্টারের শোকেসে থাকা স্বর্ণ লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় ডাকাতরা দোকান মালিক অধীর কর্মকারের পায়ে একটি গুলি ও মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায়।

news24bd.tv তৌহিদ