চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দী লাশ পুকুরে
চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দী লাশ পুকুরে

চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীর বস্তাবন্দী লাশ পুকুরে

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে পুকুর থেকে মিম (১৪) নামে এক কিশোরীর বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করেছে থানা-পুলিশ। রোববার (২৪ জুলাই) বিকেলে উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের বাকাকুড়া গ্রাম থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। মিম ওই গ্রামের মমিন মিয়ার মেয়ে ও বাকাকুড়া আদর্শগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিল।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

পুলিশ ও মিমের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত ২২ জুলাই শুক্রবার থেকে মিম নিখোঁজ হয়। বহু খোঁজাখুঁজি করেও তার কোনো সন্ধান মেলেনি। পরে রোববার দুপুরে ঝিনাইগাতী উপজেলার বাকাকুড়া গ্রামের আবু সাইদ মিয়ার বাড়ির সামনের পুকুরে বস্তাবন্দী অবস্থায় একটি লাশ ভেসে উঠতে দেখে থানা পুলিশে খবর দেন স্থানীয় লোকজন। পরে থানা-পুলিশ বিকেল তিনটার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। এদিকে খবর পেয়ে মিমের পরিবারের লোকজন লাশ দেখে তাকে শনাক্ত করে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন শেরপুরের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নালিতাবাড়ী সার্কেল) আফরোজা নাজনীন।

ঝিনাইগাতী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মিমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার নমুনা পাওয়া গেছে।

ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল আলম ভুইয়া জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

news24bd.tv তৌহিদ