ডেপুটি স্পিকারের সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা
ডেপুটি স্পিকারের সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা

ফাইল ছবি

ডেপুটি স্পিকারের সংসদীয় আসন শূন্য ঘোষণা

অনলাইন ডেস্ক

জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার মৃত্যুতে তার সংসদীয় আসন গাইবান্ধা-৫ শূন্য ঘোষণা করা হয়েছে। আজ রোববার (২৪ জুলাই) জাতীয় সংসদ সচিবালয় লেজিসলেটিভ সাপোর্ট উইং আইন প্রণয়ন শাখা-২ এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

সংবিধান অনুযায়ী, শূন্য ঘোষণার ৯০ দিনের মধ্যে ওই সংসদীয় আসনে উপনির্বাচন করতে হবে। যদি কোনো কারণে সম্ভব না হয়, তাহলে সময় বাড়ানো যাবে।

এদিকে, অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার মরদেহ সোমবার (২৫ জুলাই) দেশে আনা হবে বলে জানিয়েছেন, ডেপুটি স্পিকারের জনসংযোগ কর্মকর্তা স্বপন কুমার বিশ্বাস।

তিনি জানান, নিউইর্য়ক থেকে এয়ার এমিরেটসের বিমানে ফজলে রাব্বী মিয়ার মরদেহ দেশে আসবে। পরে জাতীয় সংসদ ভবনে এবং সুপ্রিম কোর্টে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। তারপর মরদেহ গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে জানাজা শেষে পারিবারিক করবস্থানে দাফন করা হবে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২২ জুলাই) বাংলাদেশ সময় দিনগত রাত ২টার দিকে যুক্তরাষ্ট্রের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন ফজলে রাব্বী মিয়া।

ডেপুটি স্পিকারের ভাই ফাহাদ রাব্বী ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। ফজলে রাব্বী মিয়া দীর্ঘ ৯ মাস ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন।

ফজলে রাব্বী মিয়া ১৯৪৬ সালের গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার গটিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি চারবার জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে ২০০১ সালের নির্বাচনে পরাজিত হন। তবে ২০০৮ সালের নির্বাচন থেকে টানা তিনবার আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবেই সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

১৯৯০ সালে আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি।

news24bd.tv/কামরুল