তুরাগ নদী থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের লাশ উদ্ধার
তুরাগ নদী থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের লাশ উদ্ধার

সংগৃহীত ছবি

তুরাগ নদী থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের লাশ উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক

নিখোঁজের দুদিন পর নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির শেষ বর্ষের এক শিক্ষার্থীর মরদেহ তুরাগ নদী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানাধীন পলাশোনা ঘাট এলাকা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের নাম মোয়াজের বিন আলম (২৪)। তিনি ঢাকার ভাটারা থানার রেজাউল আলম হিরোর ছেলে।

তিনি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

নিহত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের মামা জহির উদ্দিন জানান, গত শনিবার সকালে পঞ্চগড় বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হন মোয়াজের বিন আলম। তিনি একাধিকবার মোবাইল ফোনে তার মায়ের সঙ্গে কথা বলেন। এর ঘণ্টাখানেক পর নিখোঁজ হন আলম। তার সন্ধানে স্বজনরা বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন।

জিএমপির গাছা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শরিফুল আলম ও টঙ্গী নৌপুলিশ ফাঁড়ির এসআই আসাদুন্নবী সরকার জানান, ঘটনার রাতে গাজীপুর মহানগরীর বাসন থানার ইসলামপুর ভাঙ্গা ব্রিজ এলাকায় তুরাগ নদীর পাড় থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় কাপড়, আইডি কার্ড ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। নিহত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের স্বজনরা ওই কাপড়, আইডি কার্ড ও মোবাইল ফোন নিখোঁজ আলমের বলে শনাক্ত করেন। এরপর থেকে তারা ইঞ্জিনচালিত নৌকাযোগে নিখোঁজ আলমের সন্ধান করতে থাকেন। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে নিখোঁজের দুদিন পর আজ দুপুরে ভাঙ্গা ব্রিজ এলাকা থেকে কয়েক কিলোমিটার ভাটিতে মহানগরীর গাছা থানাধীন পলাশোনা ঘাট এলাকায় তুরাগ নদীতে আলমের মরদেহ ভাসতে দেখেন। খবর পেয়ে নৌপুলিশের সহায়তায় ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।  

ধারণা করা হচ্ছে, নদীতে নামার পর স্রোতের তোড়ে ভেসে গিয়ে পানিতে তলিয়ে নিখোঁজ হন আলম। এতে তার মৃত্যু হয়।  এ ঘটনায় মোয়াজেরের বাবা বাদী হয়ে গাছা থানায় একটি মামলা করেছেন।

news24bd.tv/আলী