ঘরে ৫০ কোটি রুপির কথা জানতেন না অর্পিতা!
ঘরে ৫০ কোটি রুপির কথা জানতেন না অর্পিতা!

সংগৃহীত ছবি

ঘরে ৫০ কোটি রুপির কথা জানতেন না অর্পিতা!

অনলাইন ডেস্ক

তার দুটি ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রায় ৫০ কোটি রুপি, অথচ এ নিয়ে নাকি কিছুই জানতেন না আর্থিক কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে গ্রেপ্তার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। দেশটির এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) তদন্তকারীদের কাছে এ দাবি করেন অর্পিতা। এ জন্য গ্রেপ্তার পশ্চিমবঙ্গের সদ্য সাবেক মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দায়ী করেছেন তিনি।

শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা

শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত একটি মানি লন্ডারিং কেলেঙ্কারি মামলায় তদন্ত চালাচ্ছে ইডি। এরই মধ্যে ২৩ জুলাই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও সদ্য সাবেক শিল্পমন্ত্রী পার্থ এবং তার সহযোগী অর্পিতাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারের আগের দিন অর্পিতার একটি ফ্ল্যাট থেকে ২১ কোটি রুপি আর বৃহস্পতিবার আরেকটি ফ্ল্যাট থেকে নগদ ২৯ কোটি রুপি ও ৫ কেজি সোনার গয়না জব্দ করেছে ইডি। অর্পিতার দুই ফ্ল্যাট থেকে সব মিলিয়ে ৫০ কোটি রুপি জব্দ করা হলো।

গ্রেপ্তার অর্পিতা ও পার্থকে ১০ দিন করে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ইডির তদন্তকারীরা বলছেন, জিজ্ঞাসাবাদে অর্পিতা দাবি করেন, এত অর্থ তার না। তিনি বলেছেন, ‘স্যার! এত টাকা আমার বাড়িতে রাখা হয়েছিল? বিশ্বাস করুন। এত টাকার কথা আমি জানতাম না। ’

ইডির দাবি, প্রাথমিক জেরায় জানা গেছে, টালিগঞ্জ ও বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে টাকা নিয়ে যেতেন পার্থের প্রতিনিধি। সেই টাকা রেখে তারা চলে আসতেন।

বুধবার টিভিতে টাকার পরিমাণ দেখার পর অর্পিতা দাবি করেন, ‘এর মধ্যে (বাজেয়াপ্ত হওয়া টাকা) এক টাকায়ও হাত দেয়ার অধিকার ছিল না আমার। গয়না আলমারির লকারে রাখা থাকত। কয়েকটা হয়তো আমি পরেছি। কিন্তু এই গয়নায়ও আমার কোনো অধিকার ছিল না। ’

অর্পিতাকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় হাজির করা হয়েছিল পার্থকেও। এ সময় চুপ করে বসেছিলেন তিনি। অর্পিতা বলেন, ‘স্যার। আমার নামে সম্পত্তি-কোম্পানি সবই রয়েছে। আমি এ সম্পত্তির মালিক না। আমি কিছুই জানি না। ’

এদিকে স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি) নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেপ্তার তৃণমূল কংগ্রেস নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের মন্ত্রিসভা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।  

news24bd.tv/আলী