লোকালয়ে আসা হনুমান ১৭ দিন পর উদ্ধার
লোকালয়ে আসা হনুমান ১৭ দিন পর উদ্ধার

লোকালয়ে আসা হনুমান ১৭ দিন পর উদ্ধার

আব্দুর রশিদ শাহ, নীলফামারী

প্রায় দুই সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে নীলফামারী জেলা শহরের বিভিন্ন এলাকার খাবারের সন্ধানে একেবারে জনসমাগমে ঘোরাফেরা করা হনুমানটি উদ্ধার করেছে বনবিভাগ। শুক্রবার(২৯জুলাই) সকালে নীলফামারী বড় বাজারের একটি মোবাইল টাওয়ার থেকে এটিকে উদ্ধার করে রংপুর ও স্থানীয় বন অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা।

হনুমানটিকে উদ্ধারের বিষয়টি নীলফামারী জেলা বন বিভাগের কর্মকর্তা মোনায়েম খান। তিনি বলেন, আজ সকালে রংপুর বন বিভাগ ও আমরা নীলফামারী বন বিভাগের কর্মকর্তারা যৌথ অভিযান চালিয়ে হনুমানটিকে উদ্ধার করি।

হনুমানটি টাঙ্গাইলের মধুপুর থেকে এই এলাকায় এসেছে বলে ধারণা । আমরা গত কয়েকদিন ধরে  হনুমানটির গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে আজকে উদ্ধার করি।  

রংপুর বন্যপ্রাণী ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা স্মৃতি সিংহ রায় বলেন, নীলফামারী বন বিভাগের সহায়তায় রংপুর থেকে একটি টিম গিয়ে চেতনা নাশক ওষুধ দিয়ে নীলফামারী শহরের বড়বাজার এলাকার একটি মোবাইল টাওয়ার থেকে হনুমানটিকে উদ্ধার করতে সক্ষম হই। হনুমানটিকে দেখে মনে হচ্ছে কিছুটা অসুস্থ। রংপুর চিড়িয়াখানায় এটিকে রেখে সুস্থ করে কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী রংপুর চিড়িয়াখানায় অথবা টাঙ্গাইলের মধুপুর বনে অবমুক্ত করা হবে।

স্থানীয়রা বলেন খাবারের জন্য  ছুটাছুটি করছেন সব খানে। তবে পেট হলে বেশি সময়  বসে থাকতে দেখি হনুমানটিকে।  আজকে  বনবিভাগের কর্মকর্তারা এটিকে উদ্ধার করে।   স্থানীয়রা উৎসুক ছিল হনুমানটিকে দেখার জন‍্য। লোকালয়ে চলাফেরা করলেও কোন মানুষের কোনো ক্ষতি করেনি। এছাড়াও যে যেভাবে পারছে হনুমানটিকে খাবার দিয়েছে।

একটা বন্য প্রাণীর প্রতি মানুষের ভালোবাসা সত্যিই বিরল। সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রউপ বলেন, হনুমানটি পৌরসভার বিভিন্ন জায়গায়  ঘুরছে ফিরছে এমন সংবাদ পেয়ে বন বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে যোগাযোগ করেন। আজকে তা উদ্ধার করার বনবিভাগের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

news24bd.tv/তৌহিদ