চোর সন্দেহে বাক প্রতিবন্ধীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

চোর সন্দেহে বাক প্রতিবন্ধীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

সোহাগ জামান, ফরিদপুর

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার কমলেশ্বরদী গ্রামে গরু চোর সন্দেহে জসীম মোল্লা নামে এক বুদ্ধি ও বাক প্রতিবন্ধী যুবককে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করেছে স্থানীয়রা। এ ঘটনায় প্রতিবন্ধী যুবককে পিটিয়ে শরীরে চালানো হয়েছে অমানবিক নির্যাতন।  

নির্মমভাবে তার পায়ের নখ ও দাঁত প্লাস দিয়ে টেনে তুলে ফেলেছে তারা। পাশাপাশি শরীরের বিভিন্ন স্থানে সুঁচ দিয়ে খুচিয়ে নির্মম নির্যাতন চালানো হয়।

সেই সাথে পেটানোও হয় তাকে।

স্বজনরা জানান, গত ২৩ জুলাই জসীম নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজ করে না পাওয়ার পরে হাসপাতালে তার সন্ধান পায় পরিবার। জসীমের উপর চলা অমানবিক নির্যাতনে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে পরিবারের স্বজনরা।

এদিকে, একজন প্রতিবন্ধীর সাথে চলা অমানবিক নির্যাতনের ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি স্থানীয়দের।

নির্যাতিত প্রতিবন্ধী যুবকের শারীরিক অবস্থা বর্তমানে কিছুটা উন্নতির দিকে বলে জানান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানায় পুলিশ।

প্রতিবন্ধী জসীম মোল্লাকে যারা মিথ্যা অভিযোগে অমানবিক নির্যাতন চালিয়েছে তাদেরকে দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি ফরিদপুরবাসীর।

news24bd.tv/কামরুল