ফেসবুক হ্যাক করে নতুন পদ্ধতিতে প্রতারণা করতো আকাশ
ফেসবুক হ্যাক করে নতুন পদ্ধতিতে প্রতারণা করতো আকাশ

সংগৃহীত ছবি

ফেসবুক হ্যাক করে নতুন পদ্ধতিতে প্রতারণা করতো আকাশ

অনলাইন ডেস্ক

প্রথমে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাকড করতো। এরপর সেই আইডিতে অসুস্থ ও দুস্থ মানুষের ছবি পোস্ট করে চাওয়া হতো সাহায্য। এভাবে সাহায্য চাওয়ার নামে প্রতারণার মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছি একটি চক্র। তবে শেষ রক্ষা হয়নি।

চক্রটির এক সদস্য ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগের হাতে গ্রেফতার হলে তার কাছে প্রতারণার এমন তথ্য পায় পুলিশ।

গ্রেফতার ব্যক্তির নাম শাহরিয়ার আজম আকাশ। তিনি এর আগেও গ্রেফতার হয়েছিলেন। সম্প্রতি জেল থেকে ছাড়া পেয়ে একই অপরাধে জড়ান তিনি।

মঙ্গলবার রাতে যশোরের কোতয়ালি থানার নিজ বাসা থেকে আকাশকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি আইফোন, দুটি বাটন ফোন, একটি ফেসবুক আইডি এবং ব্যবহৃত বিকাশ নম্বরগুলো উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতের বিরুদ্ধে রমনা মডেল থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে এবং যশোরের কোতয়ালি থানায় তার বিরুদ্ধে আরও দুটি মামলা রয়েছে।

সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ জানায়, গ্রেফতারকৃত আকাশ কারও আইডি হ্যাকড করার জন্য প্রথমে ফিসিং লিংক পাঠাতো। এরপর সেই ব্যক্তি ফিসিং লিংকে ক্লিক করলেই তার সব তথ্য পেয়ে যেতো আকাশ। পরে তার ফেসবুক আইডি হ্যাক করে সাহায্য চেয়ে নানা অসুস্থ ও দুস্থ ব্যক্তির ছবি পোস্ট করতো। পোস্ট দেখে অনেকে বিশ্বাসও করতো। এরপর পোস্টে দেওয়া নাম্বারে টাকা পাঠানো হতো। সেই টাকা তুলে লাপাত্তা হতো আকাশ। এভাবে গত ২ মাসে প্রতারণার মাধমে সে প্রায় ১২ লাখের বেশি টাকা আত্মসাৎ করেছে। তার কাছ থেকে শতাধিক হ্যাকডকৃত ফেসবুক আইডি পাওয়া গেছে।

সিটি-সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের ই-ফ্রড টিমের সহকারী পুলিশ কমিশনার সুরঞ্জনা সাহা জানান, বিভিন্ন অনলাইন মনিটরিং করার সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে  বেশ কয়েকটি পেইজ হতে গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তি ও শিশুর ছবি পোস্ট দিয়ে সাহায্যের আবেদন জানানোর পোস্ট লক্ষ্য করা যায়। যেখানে বিকাশ ও নগদ নম্বরও দেওয়া হয়। আর সাহায্য করতে না পারলেও পোস্টগুলো যেন শেয়ার করা হয় বলে আকুতি জানায়। এমন কয়েকটি পেইজ নিয়ে কাজ শুরু করে সাইবার পুলিশ। এক পর্যায়ে অবস্থান শনাক্ত করে যশোর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আকাশ অনেক দিন আগে থেকেই এমন সাইবার অপরাধে জড়িত। এমন অপরাধের কারণে ইতোপূর্বেও সে গ্রেফতার হয়েছিল। গত মে মাসে জেল থেকে ছাড়া পেয়ে পুনরায় একই অপরাধে জড়িয়ে পড়ে।

news24bd.tv/আলী

পাঠকপ্রিয়