‌‌'সারের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কিছু দলের উদ্বেগ প্রকাশ নির্লজ্জতা'
‌‌'সারের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কিছু দলের উদ্বেগ প্রকাশ নির্লজ্জতা'

সংগৃহীত ছবি

‌‌'সারের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কিছু দলের উদ্বেগ প্রকাশ নির্লজ্জতা'

শাহনাজ ইয়াসমিন

আমাদের পর্যাপ্ত ইউরিয়া সার রয়েছে, তাই সংকট হওয়ার কোনো কারন নেই। এখন ইউরিয়া মজুদ আছে ৭ লাখ ২৭ হাজার টন। আর চাহিদা হলো ৬ লাখ ১৯ হাজার টন।  সারের দাম বাড়ার কারনে ভর্তুকি দাঁড়িয়েছে প্রতি কেজি ইউরিয়া ৫৯ টাকা, টিএসপি ৮৬ টাকা, এমওপি ৯১ টাকা এবং ডিএপিতে ১০৭ টাকা।

তবে দেশের কোথাও কৃত্রিম সংকট তৈরি করে দাম বেশি নেয়া হচ্ছে কি না তা মনিটর করা হচ্ছে। এটা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।  

আজ বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সারের দাম বৃদ্ধি নিয়ে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এমপি।  তিনি আরো বলেন, গত ১৩ বছরে দেশে সার সহ অন্যান্য কৃষি উপকরণের কোনো সংকট হয়নি। সরকারের ভর্তুকির ফলে দামও বাড়েনি। এখন আন্তর্জাতিক বাজারে অস্বাভাবিক দাম বাড়ার কারনে দেশেও সারের দাম বাড়ানো হয়েছে। তবে এটা বেশিদিন থাকবে না। সারের দাম বাড়ায় বিএনপিসহ কিছু বাম দলের উদ্বেগ প্রকাশ করা নির্লজ্জতা। কারন বিএনপির আমলে সারের জন্য কৃষককে প্রাণ দিতে হয়েছে।  

news24bd.tv/desk