নতুন যুগের সাক্ষী জম্মু-কাশ্মীর : এলজি সিনহা
নতুন যুগের সাক্ষী জম্মু-কাশ্মীর : এলজি সিনহা

সংগৃহীত ছবি

নতুন যুগের সাক্ষী জম্মু-কাশ্মীর : এলজি সিনহা

অনলাইন ডেস্ক

২০১৯ সালের ৫ আগস্ট সংবিধানের বিশেষ সংশোধনীর মাধ্যমে সংবিধানের যে অনুচ্ছেদে কাশ্মীরের জন্য বিশেষ সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছিল তা রোহিত করার ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ভারত সরকার।  সংবিধানের সেই ৩৭০ এবং ৩৫/এ অনুচ্ছেদ রোহিত করার দৃঢ় সিদ্ধান্তের পর পেরিয়ে গেছে তিন বছরের বেশি সময়। তবে অল্প এ সময়ের মধ্যেই শঙ্কা দূরে ঠেলে জম্মু-কাশ্মীরে দেখা গেছে উল্লেখ করার মতো বেশকিছু পরিবর্তন।  এই পরিবর্তন বিষয়ে লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা বলেছেন,  জম্মু- কাশ্মীরে বিষয়ে সংবিধান সংশোধনের পর এখানে নতুন একটি যুগের শুরু হয়েছে।

যা নতুন নতুন যুগের সাক্ষী  হতে চলেছে।

তিনি বলেন, বিগত দুই-তিন বছরে জম্মু- কাশ্মীর এর যাত্রা সাক্ষী দেয় যে, মুল ভারতের অংশীদার হওয়াতে এখানে নতুন একটি ভিন্ন গল্পের সূচনা হয়েছে।  গত তিন বছরে, জম্মু ও কাশ্মীরে একটি ব্যাপক বিস্তৃত উন্নয়ন কর্মসূচি গৃহীত হয়েছে এবং তা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। জ্বালানি থেকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য থেকে উদ্যানতত্ত্ব, তথ্যপ্রযুক্তি অবকাঠামো, খেলাধুলা থেকে পর্যটন– জম্মু ও কাশ্মীর সমৃদ্ধি ও উন্নয়নের সাক্ষী হয়েছে। বর্তমানে এখানকার যুবকেরা স্টার্ট-আপের দিকে তাকিয়ে আছে। এছাড়াও স্টার্ট-আপ সহ বিভিন্ন সেক্টরে নিজেদের পারফর্মার হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করছে।

লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা নিউজ ১৮ ইন্ডিয়ার সাথে একটি সাক্ষাত্কারে এসব কথা বলেন।  ২০১৯ সালের বিভিন্ন ঘটনাবলীর পরে সেখানে সময়ের সাথে সাথে একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তনের আশার কথাও বলেন তিনি। তিনি বলেন, এই পরিবর্তন হবে যদি সেখানে বিচক্ষণ এবং পরিপক্ক রাজনীতিবিদরা নিজেদের বিচক্ষণতা এবং অভিজ্ঞতার আলোকে কাজ করেন।

তিনি বলেন, ঐতিহাতিকভাবেই এ অঞ্চলের বিপুল সংখ্যক দলিত, উপজাতি এবং নারীরা অবহেলিত, পশ্চাৎপদ। এখন তাদের সুরক্ষা এবং সম্মান নিশ্চিত করা হয়েছে। এই ধরনের অনেক অধিকার নিশ্চিতে ১৫৩টিরও বেশি আইন বাতিল করে ১৬০টিরও বেশি কেন্দ্রীয় কল্যাণ আইন প্রবর্তন করা হয়েছে।

তিনি বেশ কয়েকটি পরিসংখ্যান উদ্ধৃত করে বলেন, জাতীয় পারিবারিক স্বাস্থ্য সমীক্ষা অনুসারে ২৪.৯ মৃত্যুহারের বিপরীতে  জম্মু- কাশ্মীরে নবজাতক মৃত্যুর হার নেমে এসেছে  ৯.৮ শতাংশে। সেখানে শিশুমৃত্যুর হার ৩৫.২-এর জাতীয় গড়ের বিপরীতে ১৬.৩ শতাংশে নেমে এসেছে। জম্মু ও কাশ্মীরে, পাঁচ বছরের কম বয়সী মৃত্যুর হার জাতীয় গড় ৪১.২ এর বিপরীতে ১৮.৫ এ নেমে এসেছে।  

 আরও পড়ুন : উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের পথে জম্মু-কাশ্মীর

এ অঞ্চলের শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নেও নজর দিয়েছে কেন্দ্র। এরই মধ্যে কাংক্রম শুরু করেছে ইনডিয়ান ইনিস্টিটিউট অব টেকনলজি জম্মু এবং ইনডিয়ান ইনিস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট জম্মু। স্নাতক এবং প্রকৌশল পর্যায়ের সরকারি কলেজের সংখ্যা ৯৬টি থেকে বেড়ে হয়েছে ১৪৭টি।

তিনি এরকম আরও বিভিন্ন পরিসংখ্যা দিয়ে বলেন, এই পরিসংখ্যানগুলি লক্ষ্য করলে দেখা যাবে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর থেকে জম্মু- কাশ্মীরে গত দুই তিন বছরে সর্বই পরিবর্তন হয়েছে। মানুষের জীবন যাত্রার মান বেড়েছে।

news24bd.tv/আলী