হাসপাতালের আবাসিক কক্ষে নারী চিকিৎসকের ঝুলন্ত মরদেহ
হাসপাতালের আবাসিক কক্ষে নারী চিকিৎসকের ঝুলন্ত মরদেহ

হাসপাতালের আবাসিক কক্ষে নারী চিকিৎসকের ঝুলন্ত মরদেহ

অনলাইন ডেস্ক

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় রোকেয়া বেগম ডেইজি (২৭) নামে এক নারী চিকিৎসকের ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) বিকেলে উপজেলার দলার দর্গা মেমোরিয়াল হাসপাতালের দ্বিতীয় তলার একটি কক্ষ থেকে মরদেহ উদ্ধার করা হয় বলে নিশ্চিত করেছেন নবাবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান আক্তার।

নিহত রোকেয়া বেগম ডেইজি (২৭) দিনাজপুরে ফুলবাড়ি উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের সিরাজের মেয়ে। তার স্বামী আরিফুজ্জামান আরিফও একজন চিকিৎসক।

তিনি চিরিরবন্দরে কর্মরত বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এ ব্যাপারে কথা হলে নবাবগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক ও তদন্তকারী কর্মকর্তা আক্তারুজ্জামান আক্তার জানান, আজ মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার ওই হাসপাতালের দ্বিতীয় তলায় এক চিকিৎসক আত্মহত্যা করেছেন এমন খবরের ভিত্তিতে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। এ সময় হাসপাতালে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

তিনি আরও জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তবে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে বিকেলে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন চিকিৎসক রোকেয়া।

‘ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে, আত্মহত্যা নাকি হত্যা’ বলেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

news24bd.tv তৌহিদ