ফেনীতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ
ফেনীতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ

ফেনীতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগ সংঘর্ষ

অনলাইন ডেস্ক

ফেনীতে বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ১৫ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (১২ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, জ্বালানি তেলসহ বিভিন্ন পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি, পরিবহন ভাড়া বৃদ্ধি ও লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদে বিকেল ৩টার দিকে শহরের ইসলামপুর রোড থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে ছাত্রদল ও যুবদল।

মিছিলটি শহরের প্রধান সড়কে উঠতেই ছাত্রলীগ বাধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ লাঠিচার্জ করে। এ সময় উভয় পক্ষ ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু করে। এ ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তোফায়েল আহমেদ তপু বলেন, ছাত্রলীগ কারোর ওপর হামলা করেনি। ছাত্রলীগ শান্তিপূর্ণ মিছিল করে ফিরছিল। এ সময় বিএনপির লোকজন শহীদ শহীদুল্লাহ কায়সার সড়কের বিভিন্ন দোকানে ইট-পাটকেলে নিক্ষেপ করে ভাঙচুর চালায়। তারা গুলিও নিক্ষেপ করে। এ সময় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা সাধারণ মানুষের জানমাল রক্ষায় বিএনপির সন্ত্রাসীদের ধাওয়া করে।

ফেনী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী বলেন, শান্তির জনপদকে অশান্ত করার জন্য বিএনপির মিছিলে কে বা কারা হামলা করেছে তা আমাদের জানা নেই। এ ঘটনায় আমাদের কেউ আহতও হয়নি। তবে সিসিটিভি রয়েছে সেগুলো দেখে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন জানান, বিএনপির সমাবেশ সংলগ্ন স্থানে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনতে ১০/১২ রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় কেউ আহত হয়েছে কিনা এখন পর্যন্ত জানি না।

news24bd.tv/তৌহিদ