ট্রাম্পের বাড়ি থেকে গোপন নথি জব্দ
ট্রাম্পের বাড়ি থেকে গোপন নথি জব্দ

সংগৃহীত ছবি

ট্রাম্পের বাড়ি থেকে গোপন নথি জব্দ

অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফ্লোরিডার বাসায় তল্লাশি চালিয়ে ১১ সেট অতি গোপন নথি পেয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (এফবিআই)। জব্দ করা নথির বিষয়ে ট্রাম্প বলেছেন, তিনি কোনো অপরাধ করেননি। নথিগুলোতে গোপন কিছু নেই এবং নিরাপদ। মার্কিন সংবাদ মাধ্যমগুলোর বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

 

শুক্রবার (১২ আগস্ট) ট্রাম্পের পাম বিচের মার-এ-লাগো রিসোর্টে তল্লাশি চালিয়ে নথিগুলো উদ্ধার করা হয়। নথিগুলোর একটি তালিকা করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে একজন বিচারক সাত পৃষ্ঠার নথি মুক্ত করেন। এরপর নথিগুলোর তালিকা প্রকাশ করা হয়।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্পের বাড়ি থেকে এফবিআইয়ের উদ্ধার করা জিনিসের মধ্যে রয়েছে ২০টি বাক্স, ফটো বাইন্ডার এবং ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের মিত্র রাজনৈতিক পরামর্শদাতা রজার স্টোনের পক্ষে লেখা একটি চিঠি। এ ছাড়া ‘ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট’ সম্পর্কে লেখা একটি নথি উদ্ধার করা হয়েছে। যদিও ওই নথিতে কী বলা হয়েছে তা স্পষ্ট জানা যায়নি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, নথিগুলো কয়েকটি শ্রেণিতে আলাদা করা হয়েছে। একটি তালিকায় দেখা যায়, এর একটি‘টিএস/এসসিআই’ বা অতি গোপন/সংবেদনশীল তথ্যের জন্য সংরক্ষিত। যা মার্কিন নিরাপত্তার জন্য ‘ব্যাপক গুরুতর’ ক্ষতির কারণ হতে পারে। এ ছাড়া তালিকায় ‘অতি গোপন নথির চার সেট’, ‘গোপন নথির তিনটি সেট’ এবং ‘গোপনীয়’ নথির তিনটি সেট অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। উদ্ধার হওয়া নথিগুলোর বিষয়ে এর চেয়ে বেশি বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ তল্লাশি পরোয়ানার বিষয়বস্তু প্রকাশ করতে বিচারককে অনুরোধ জানান। ওই পরোয়ানার ভিত্তিতেই গত সোমবার (৮ আগস্ট) মার-এ-লাগোতে তল্লাশি চালায় এফবিআই।

যুক্তরাষ্ট্রে সাবেক কোনো প্রেসিডেন্টের বাড়িতে এভাবে এফবিআইয়ের তরফে অভিযান পরিচালনাকে অভূতপূর্ব বলে জানিয়েছে গণমাধ্যমগুলো। এদিকে রিপাবলিকান পার্টির নেতা ডোনাল্ড ট্রাম্প এই তল্লাশি অভিযানকে রাজনৈতিক প্রতিশোধ হিসেবে দেখছেন। তিনি তার ট্রুথ সোশ্যাল প্ল্যাটফর্মে এক বিবৃতিতে বলেছেন, উদ্ধারকৃত আইটেমগুলো ‘সব ডিক্লাসিফাইড’ এবং নিরাপদে সংরক্ষণ করা হয়েছিল।

news24bd.tv/আলী