শিক্ষকের পাত্র থেকে পানি খাওয়ায় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা
শিক্ষকের পাত্র থেকে পানি খাওয়ায় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

প্রতীকী ছবি

শিক্ষকের পাত্র থেকে পানি খাওয়ায় ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক

তৃষ্ণার্ত দলিত সম্প্রদায়ের ছেলেটি শিক্ষকের পাত্রে পানি খেয়েছিল। এতেই চটে যায় ওই শিক্ষক। বর্ণবাদের অপবাদ দিয়ে তাকে মারধর করে।  গুরুত্বর আহত হন ওই শিক্ষার্থী।

অবশেষে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে মারা গেল সে। ঘটনাটি ভারতের রাজস্থানের।

শনিবার আহমেদাবাদে ওই শিক্ষার্থী মারা যায়। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করেছে দেশটির পুলিশ।

পুলিশ বলছে, গত ২০ জুলাই রাজস্থানের জালোর জেলার সায়েলা গ্রামের একটি বেসরকারি স্কুলে এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষকের মারধরে চোখে ও কানে গুরুত্বর আঘাত পায় ওই শিক্ষার্থী।  চিকিৎসার জন্য তাকে ৩০০ কিলোমিটার দূরে আহমেদাবাদে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে। পরিস্থিতি সামাল দিতে জালোরের ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করে করেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘শিক্ষকের মারধরে ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনা দু:খজনক। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দ্রুততম সময়ের মধ্যে ন্যায়বিচার নিশ্চিত করা হবে। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে ক্ষতিপূরণ বাবদ পাঁচ লাখ রুপি দেওয়া হবে। ’

নিহতের বাবা দেওয়ারাম মেঘাল বলেন, ‘পানি খওয়ায় চালি সিং নামের ওই শিক্ষক বর্ণবাদের অপবাদ দিয়ে আমার ছেলেকে বেধড়ক মারধর করে। তার অনেক রক্তক্ষরণ হয়েছে। আমি তাকে চিকিৎসার জন্য উদয়পুরে নিয়ে যায়। পরে আহমেদাবাদে নিয়ে যায়। সেখানে সে মারা যায়। ’

সূত্র: এনডিটিভি

news24bd.tv/মামুন