বাগেরহাটে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত, পানিবন্দী কয়েক হাজার পরিবার
বাগেরহাটে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত, পানিবন্দী কয়েক হাজার পরিবার

পানিবন্দী বাগেরহাট

বাগেরহাটে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত, পানিবন্দী কয়েক হাজার পরিবার

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিন্মচাপের প্রভাবে নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বাগেরহাটের ৭টি উপজেলার শতাধিক গ্রাম পানিতে প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে এখানকার হাজারো মানুষ।  

রবিবার দুপুরের জলোচ্ছ্বাসে মোরেলগঞ্জ, মোংলা, রামপাল, বাগেরহাট সদর, কচুয়া, চিতলমারী ও শরণখোলা উপজেলার কয়েক হাজার মাছের খামার ও পুকুর পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে ভেসে গেছে মাছ।

সড়কের বিভিন্ন স্থানে ভেঙ্গে পানি ঢুকে মোরেলগঞ্জ পৌরসভা পানিতে প্লাবিত রয়েছে।  

এদিকে নিন্মচাপের প্রভাবে বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকায় শনিবার রাত থেকে সাগরে ইলিশ আহরণ বন্ধ হয়ে গেছে। তিন নম্বর সংকেতের মধ্যে উত্তাল সাগরে টিকতে না পেরে কয়েক হাজার ফিশিং ট্রলার সুন্দরবনের ছোট নদী-খাল ও বাগেরহাটের বিভিন্ন মৎস্য বন্দরে আশ্রয় নিয়েছে। সুন্দরবনের দুবলা জেলেপল্লী টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও মৎস্যজীবি সংগঠনের নেতারা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মোরেলগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শাহ ই আলম বাচ্চু জানান, বেড়িবাঁধ না থাকার কারনে দিনে-রাতে দুইবার করে প্লাবিত হচ্ছে মোরেলগঞ্জ পৌরশহরসহ পানগুছি নদীতীরবর্ত্তী গ্রামগুলো। এতে কয়েক হাজার বসতবাড়ি, দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পানিতে প্লাবিত হয়েছে। ঘরবাড়ি পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় এসব পরিবারের অনেকেই রান্না করতে না পেরে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। পানিতে এ পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার মৎস্যঘের ও পুকুর পানিতে তলিয়ে গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

news24bd.tv/আজিজ