শোক দিবসে পাঁচ হাজার মানুষকে খাবার দিল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র
শোক দিবসে পাঁচ হাজার মানুষকে খাবার দিল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র

সংগৃহীত ছবি

শোক দিবসে পাঁচ হাজার মানুষকে খাবার দিল শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র

অনলাইন ডেস্ক

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট স্বাধীন বাংলার রূপকার জাতীর জনক শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করে খুনিরা। সেদিন খুনিদের হাত থেকে রেহাই পাননি শেখ মুজিবুরের কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল। মাত্র ১১ বছর বয়েসি রাসেলকে খুন করতে হাত কাঁপেনি খুনিদের। ইতিহাসের নৃশংস ও মর্মস্পর্শী এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গভীর ও বিনম্র শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুসহ সেদিনের শহীদদের স্মরণ করছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র।

জাতীয় শোক দিবসে শেখ মুজিবুর রহমান এবং তার পরিবারের আত্মার মাগফেরাত শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লি: এর  চেয়ারম্যান ও বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীর এর উদ্যোগে কোরআন খতম, দোয়া মাহফিল এবং গরীবদের মাঝে খাবার বিতরণ কর্মসূচি আয়োজন করা হয়েছে।

আজ (১৫ আগস্ট) সকালে বনানী কবরস্থানে বঙ্গমাতা ও শহীদ শেখ রাসেল সহ ঐদিনের সকল শহীদদের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের কর্মকর্তা এবং কর্মচারী বৃন্দ। এরপর বনানী কবরস্থানেই মিলাদ এবং দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। দোয়া মাহফিলের পর বনানীতে গরীবদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের ডিরেক্টর ইনচার্জ ইসমত জামিল আকন্দ, ডিরেক্টর ফাইন্যান্স মো. ফখরুদ্দিন, পরিচালক মাকসুদুর রহমান, হাবিবুর রহমান খান,  মীর মো. শাহাবুদ্দিন টিপু, মো. আবুবকর,  মো. আসাদুজ্জামান, ক্লাবের আজীবন সদস্য মো. পিজিরুল আলম খান, শেখ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, আমিনুল ইসলাম, মো. মারুফ কাজি, শেখ আবু সোহেল প্রমূখ।

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে এবং হাই কোর্ট মাজারেও গরীবদের মাঝে খাদ্য বিতরণ কর্মসূচি আয়োজন করা হয়েছে । বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে দুপুর ১২টা থেকে গরীবদের মাঝে খাদ্য বিতরণ কর্মসূচি শুরু হয়। হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে দুপুর ১২টা ৩০ মিনিট থেকে গরীবদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

সবশেষে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেডের ক্লাব প্রাঙ্গণে কোরআন খতম, মিলাদ, দোয়া মাহফিল এবং গরীবদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। সারা দিনব্যাপী প্রায় পাঁচ হাজার গরীব মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। শোক দিবসে জাতীয় পতাকা এবং ক্লাবের পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়েছে এবং কালো পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে।
news24bd.tv/আলী