এক রাতে তিন নারীকে ধর্ষণ বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি তারকার!
এক রাতে তিন নারীকে ধর্ষণ বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি তারকার!

সংগৃহীত ছবি

এক রাতে তিন নারীকে ধর্ষণ বিশ্বকাপজয়ী ফরাসি তারকার!

অনলাইন ডেস্ক

ম্যানচেস্টার সিটির ফরাসি তারকা বেঞ্জামিন মেন্দির বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগের বিচার শুরু হয়েছে। গতকাল সোমবার চেশায়ারের আদালতে তার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন ১৩ জন নারী। শুনানিতে আইনজীবীরা অভিযোগ করেছেন, এক রাতেই মোট তিন নারীকে ধর্ষণ করেন ২৮ বছর বয়সী ডিফেন্ডার। অভিযোগনামায় আরো বলা হয়, নারীদের ওপর আক্রমণের সময় মেন্দি ‘পশু’র মতো আচরণ করেন তিনি।

২০১৭ সালে মোনাকো থেকে ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেন বেঞ্জামিন মেন্দি। ডিফেন্ডারদের দলবদলে সেটা ছিল বিশ্বরেকর্ড। কিন্তু ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তিনি কঠোর শাস্তি পাবেন এবং ক্যারিয়ার পড়বে হুমকির মুখে। আদালতের শুনানিতে বলা হয়, তিনি  খ্যাতি ও সম্পদ ব্যবহার করে নারীদের লোভ দেখিয়ে নিজের বাসায় এনে ধর্ষণ করেছেন।

এতে মেন্দিকে সহযোগিতা করেছেন তার ‘বন্ধু’ ৪১ বছর বয়সী লুইস সাহা মাত্তুরিয়ে। দুজনে মিলে এসব নারীর সঙ্গে নির্দয় আচরণ করেন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান জানিয়েছে, মেন্দির বাসায় পুল পার্টির পর এবং একটি নৈশ ক্লাব মিলিয়ে এক রাতে মোট তিন নারীকে ধর্ষণ করেছেন। তার বাসার দরজা এমনভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে, যেখান থেকে ভিকটিম নারীরা পালাতেও পারতেন না। সেই সব নারীর সঙ্গে নির্দয় আচরণকে মেন্দি ‘খেলা’ মনে করতেন। সেই সঙ্গে নিজেকে প্রভাবশালী উল্লেখ করে বলতেন, তার কিছুই হবে না। যদিও মেন্দি সব অভিযোগ আদালতে অস্বীকার করেছেন।  

আইনজীবী টিমোথি ক্রো আরো বলেন, লুইস সাহা মাত্তুরিয়ের কাজ ছিল তরুণীদের ফাঁদে ফেলে তাদেরকে নির্যাতনের পরিবেশ সৃষ্টি করা। এ ক্ষেত্রে ১৭ থেকে ১৮ বছর বয়সী তরুণীদের লক্ষ্যবস্তু বানাতেন, যারা একদম মাতাল হয়ে পড়তেন, এত বেশি পান করতেন যে কোনো কিছু মনে রাখতে পারতেন না এবং ঘুমিয়ে পড়তেন।  এর মধ্যে বেশির ভাগ ঘটনাই ঘটেছে করোনাভাইরাস মহামারিতে লকডাউন চলাকালে বাসায় আয়োজন করা পার্টিতে।

news24bd.tv/desk

সম্পর্কিত খবর