চকবাজার অগ্নিকাণ্ড: অনুমোদন ছিল না ভবনটির
চকবাজার অগ্নিকাণ্ড: অনুমোদন ছিল না ভবনটির

ফাইল ছবি

চকবাজার অগ্নিকাণ্ড: অনুমোদন ছিল না ভবনটির

অনলাইন ডেস্ক

রাজধানীর চকবাজারের কামালবাগের দেবীদাসলেন ঘাটে প্লাষ্টিক কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে প্রাণ গেল ছয় হোটেল কর্মীর। এ ঘটনায় হোটেল মালিককে গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। তবে যে ভবনে এ দুর্ঘটনা ঘটলো সেটিই ছিল অনুমোদহীন।

ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) লেফটেন্যান্ট কর্নেল জিল্লুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘সরকারি অনুমোদন না নিয়ে ভবনটি তৈরি করা হয়েছে। এ বিষয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। রিপোর্ট পেলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

একই মন্তব্য স্থানীয়দের।

নাম প্রকাশ না রাখার শর্তে সেখানকার এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ‘এখানে ভবন তৈরি করতে সরকারের অনুমোদন লাগে না। নেতাদের খুশি করতে পারলেই সব ব্যবস্থা হয়ে যায়। ’

স্থানীয় এক মুদির দোকানদার বলেন, ‘ভবন তৈরি করতে রাজউকের অনুমোদন নিতে হয়। কিন্তু রাজউক এখানে ভবন তৈরি করতে অনুমতি দেয়নি। ’

জানা গেছে, চারতলা ওই ভবনের মালিক চকবাজারের আলম সাহেব। মৃত্যুর পর তার ছেলে মো. রানা সব কিছুর দেখাশোনা করেন। দুই বছর আগে ভবনটি তিনি নির্মাণ করেন। এর দ্বিতীয়, তৃতীয় ও টিন শেড দিয়ে তৈরি করা চতুর্থ তলায় পলিথিন ও প্লাস্টিকের খেলনার কারখানা এবং গোডাউন ছিল। আর নিচতলায় ছিল হোটেল ও ওয়ার্কশপ।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে কামালবাগে ওই ভবনে আগুন লাগে। খবর পেয়ে দুই ঘণ্টার প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে ফায়ার সার্ভিসের ১০ ইউনিট। ওই ভবনের নিচতলার বরিশাল হোটেল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে জানায় ফায়ার সার্ভিস।

news24bd.tv/মামুন