ওয়াসা কর্মীদের পারফরম্যান্স বোনাসে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা
ওয়াসা কর্মীদের পারফরম্যান্স বোনাসে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

সংগৃহীত ছবি

ওয়াসা কর্মীদের পারফরম্যান্স বোনাসে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা পানি সরবরাহ ও পয়ঃনিষ্কাশনের (ওয়াসা) কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের পারফরম্যান্স বোনাস দেওয়ার ওপর তিন মাসের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে হাইকোর্ট। একই সঙ্গে বিধি প্রণয়ন না করে ঢাকা ওয়াসার পানির দাম নির্ধারণ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন আদালত।

বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) এ আদেশ দেন।

কনজুমার অ্যাসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশের (ক্যাব) চেয়ারম্যান স্থপতি মোবশ্বের হোসেনের করা রিটের প্রাথমিক শুনানিতে এ আদেশ দেওয়া হয়।

এলজিআরডি সচিব, ঢাকা ওয়াসা বোর্ড, ঢাকা ওয়াসার চেয়ারম্যান, এমডি, সিইও, অডিটর ও কম্পট্রোলারকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে আবেদনকারীদের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া। শুনানির সময় তিনি হাইকোর্ট বেঞ্চকে বলেন, ঢাকা ওয়াসা আইন ১৯৯৬ এর ২১ ধারা অনুযায়ী ওয়াসা বোর্ড, চেয়ারম্যান ও এমডির প্রণীত বিধি অনুযায়ী পানির শুল্ক নির্ধারণ করার কথা। কিন্তু এখন পর্যন্ত বিবাদী এলজিআরডি সচিব কোনো বিধি প্রণয়ন করেননি।

‘বিধি না থাকায় ঢাকা ওয়াসার বোর্ড, চেয়ারম্যান ও এমডি যথেচ্ছভাবে পানির শুল্ক নির্ধারণ করে ভোক্তাদের বিপদে ফেলছে। ওয়াসা আইন জারির পর কোনো বিধি ছাড়া পানির শুল্ক নির্ধারণ অবৈধ এবং এর কোনো আইনগত ভিত্তি নেই। ’

শুনানিতে এ আইনজীবী আরও বলেন, আইনের ৪৭ ধারার বিধান অনুযায়ী ওয়াসা বোর্ডের চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান বা অন্য কোনো সদস্য, এমডি, উপব্যবস্থাপনা পরিচালক বা কর্তৃপক্ষের অন্য কোনো কর্মকর্তা বা উপদেষ্টা বা কর্মচারী সরকারি কর্মচারী হিসেবে গণ্য হবেন। তাই, ঢাকা ওয়াসার বোর্ড, চেয়ারম্যান এবং এমডি ওয়াসাকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বিবেচনা করে তার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পারফরম্যান্স বোনাস দিতে পারেন না। ঢাকা ওয়াসার এমডি ব্যক্তিগত লাভের জন্য পারফরম্যান্স বোনাস দেওয়ার এই করপোরেট প্রথা চালু করেছেন, যা ঢাকা ওয়াসা আইনের পরিপন্থী।

news24bd.tv/মামুন