খরা নিয়ে সতর্কতা জারি চীনের
খরা নিয়ে সতর্কতা জারি চীনের

সংগৃহীত ছবি

খরা নিয়ে সতর্কতা জারি চীনের

অনলাইন ডেস্ক

চলতি বছরে প্রথমবারের মতো খরা নিয়ে সতর্কতা জারি করেছে চীন। বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) এ সতর্কতা জারি করা হয়।  

গত সপ্তাহ জুড়ে চীনের ‍সিচুয়ান প্রদেশে তীব্র তাপদাহ অনুভূত হয়। এরপরেই এ সতর্কতা জারি করা হল।

অধিক তাপমাত্রার জন্য জলবায়ু পরিবর্তনকে দায়ী করছে দেশটির সরকারি কর্মকর্তরা।

সংবাদ সংস্থা রয়টার্স জানায়, দাবানল মোকাবিলায়ও হিমশিম খাচ্ছে প্রাদেশিক সরকারগুলো। এমনকি ইয়াংজি নদীর তীর জুড়ে তীব্র তাপদাহে পুড়তে থাকা ফসল রক্ষায় বিশেষজ্ঞ টিম পাঠাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। আর এর পরেই খরার সতর্কতা জারি করা হয়।

তবে এটি বেইজিংয়ের স্কেলে সবচেয়ে গুরুতর সতর্কতা থেকে দুই ধাপ কম।

বৃহস্পতিবার চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, মধ্য চীনের জিয়াংসি প্রদেশে ইয়াংজি নদীর বন্যা অববাহিকাগুলোর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ পয়ং হ্রদটি এই বছর স্বাভাবিকের চেয়ে এক চতুর্থাংশে সংকুচিত হয়েছে।

শুক্রবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেল সিসিটিভি জানায়, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ৩৪ কাউন্টির ৬৬টি নদী শুকিয়ে গেছে।

স্থানীয় সরকারের বরাতে টেলিভিশনটি বলে, চলতি বছরে চংকিংয় প্রদেশে ৬০ শতাংশ কম বৃষ্টি হয়েছে। এমনকি প্রদেশটির অনেক জেলায় মাটির আদ্রতা কমে গেছে।

দেশটির আবহাওয়া অফিসের তথ্য মতে, বৃহস্পতিবার চীনের বেবেই জেলার তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রী সেলসিয়াসে পৌঁছেছে। যা দেশটির মধ্যে সর্বোচ্চ ছিল।

শুক্রবার সকালে চীনের উষ্ণতম প্রথম ১০টি স্থানের মধ্যে চংকিংয়েরই ছয়টি ছিল। সকালেই বিসান শহরের তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রীতে পৌঁছায়। অন্যদিকে সাংহাইয়ে ৩৭ ডিগ্রী রেকর্ড করা হয়।

news24bd.tv/মামুন