শিক্ষকের বাড়ি দখল নিতে হামলা, গ্রেফতার ১২
শিক্ষকের বাড়ি দখল নিতে হামলা, গ্রেফতার ১২

সংগৃহীত ছবি

শিক্ষকের বাড়ি দখল নিতে হামলা, গ্রেফতার ১২

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে বসত বাড়ী দখল নিতে সুশান্ত দাস (৩৮) নামে এক শিক্ষকের বাড়িতে হামলা ও মারপিটের ঘটনা ঘটেছে।  শুক্রবার ভোররাতে বাগেরহাট সদর উপজেলার ফুলতলা গ্রামে এই হামলার ঘটনা ঘটে।

এ সময় জীবন বাঁচাতে ওই শিক্ষক জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ এ ফোন করেন। ভুক্তভোগীদের ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ১২ হামলাকারীকে আটক করে রাখে।

ফোন পেয়ে বাগেরহাট মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ১২ জনকে গ্রেফতার করে।  

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আছাদুজ্জামান ওরফে টিপু হাওলাদার (৪৫), বেনজীর আহমেদ (৪৯), ফেরদাউস হাওলাদার (৩৩), নুর নবী (২১), হাফিজ হাওলাদার (৪০), আবু হানিফ খান (৩৬), মো. সাকিব ফকির (২০), সাফায়েত মোল্লা (৪১), মাহতাব খান (২৩), আব্দুল গাফফার শেখ (৪৪), মোতালেব খান (৬০), শামীম শেখ (১৯)। আসামীদের বাড়ি বাগেরহাট সদর ও কচুয়া ও উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে।
 
হামলায় আহত শিক্ষক সুশান্ত দাস ্ও তার অন্ত:সত্ত্বা স্ত্রী কনিকা দাসকে (২৮) বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তার ভাই বিশ্বজিত দাস ও শুকদেব দাস এবং নিকট আত্মীয় রিংকি দাস প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।  

সুশান্ত দাস জানান, আমরা বসত বাড়ির জমি নিয়ে আছাদুজ্জামান ওরফে টিপু হাওলাদারের সাথে আদালতে মামলা রয়েছে। এই অবস্থায় আমাদের বাড়ি থেকে উচ্ছেদের জন্য শুক্রবার ভোররাতে আছাদুজ্জামান ওরফে টিপু হাওলাদারের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আমাদের উপর হামলা করে। তাদের হামলায় আমি, আমার স্ত্রীসহ পাঁচ জন আহত হয়েছি। আমি নিজে বাদী হয়ে ওই গ্রেফতার ১২ জনসহ অজ্ঞাত ৮ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছি।

বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, জাতীয় জরুরী সেবা  ৯৯৯ ফোন পেয়ে ১২জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শিক্ষক সুশান্ত দাস বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃক ১২জনসহ অজ্ঞাত আরো ৮ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন।

গ্রেফতারকৃতদের দুপুরে আদালতে পাঠালে বিচারক তাদের কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন। অন্য আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।  

news24bd.tv/আজিজ