দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে সিবিআইয়ের হানা
দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে সিবিআইয়ের হানা

সংগৃহীত ছবি

দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে সিবিআইয়ের হানা

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়ার বাড়িতে এবার তল্লাশি চালিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা (সিবিআই)। শুক্রবার সকালে উপমুখ্যমন্ত্রীর বাড়িসহ সাত রাজ্যের মোট ২১টি স্থানে তল্লাশি শুরু হয়। দিল্লি সরকারের নতুন আবগারি নীতিতে দুর্নীতির অভিযোগে এ তল্লাশি। দিল্লির উপরাজ্যপাল বিনয় কুমার সাকসেনা সম্প্রতি দুর্নীতি উদ্‌ঘাটনে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন।

আম আদমি পার্টির (আপ) নেতা সিসোদিয়া রাজ্যের শিক্ষা ও আবগারি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত। সিবিআই মদের মামলায় যে ১৫ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে, তার মধ্যে এক নম্বরে সিসোদিয়া। এর আগে পশ্চিমবঙ্গসহ বিভিন্ন রাজ্যের বিরোধী নেতাদের বাড়িতে হানা দেয় সিবিআই।

সিসোদিয়া সকালে টুইট করে বলেন, বাড়িতে সিবিআই এসেছে।

ওদের সঙ্গে সহযোগিতা করব। ওরা কিছুই পাবে না। তিনি আরও বলেন, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য দুটি ক্ষেত্রে দিল্লি সরকার চমৎকার কাজ করছে। সেই কারণে বিজেপি বিচলিত। তাই এ দুই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা মন্ত্রীদের নিশানা করা হয়েছে।

তল্লাশি শুরু হতেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, কোনো তল্লাশিই তার সরকারকে ভালো কাজ করা থেকে বিরত রাখতে পারবে না। দেশের গরিবদের মঙ্গলের জন্য যা কিছু করা উচিত, আপ সরকার করে যাবে, যতই বাধা সৃষ্টি করা হোক।

কেজরিওয়াল বলেন, অতীতেও এমন বহু তল্লাশি চালানো হয়েছে। কিছুই পাওয়া যায়নি। এবারও কিছু পাওয়া যাবে না। আমরা সিবিআইয়ের সঙ্গে পূর্ণ সহযোগিতা করব।

দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন কারাগারে। রাজ্য সরকারের নতুন আবগারি নীতি নিয়ে হইচই শুরু হলে খোদ মুখ্যমন্ত্রীই আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছিলেন, এবার মনীশ সিসোদিয়া আতশ কাচের তলায় আসতে চলেছেন।  

news24bd.tv/আলী