ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, ঢাবি শিক্ষককে অব্যাহতির সুপারিশ
ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, ঢাবি শিক্ষককে অব্যাহতির সুপারিশ

সংগৃহীত ছবি

ছাত্রীকে যৌন হয়রানি, ঢাবি শিক্ষককে অব্যাহতির সুপারিশ

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। ছাত্রীর অভিযোগ ওই শিক্ষক তকে যৌন হয়রানিমূলক প্রস্তাব দিয়েছেন।

এমন অভিযোগের পর সংগীত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. এনামুল হককে শিক্ষা কার্যক্রম থেকে এক বছরের জন্য অব্যাহতি দেওয়ার সুপারিশ করেছে বিভাগের একাডেমিক কমিটি৷

জানা গেছে, কিছুদিন আগে একটি রেস্তোরাঁয় ডেকে বিভাগের ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানিমূলক প্রস্তাব দেন শিক্ষক এনামুল হক৷ ওই ছাত্রী তাতে রাজি হননি। এরপরও বারবার ছাত্রীকে একই প্রস্তাব দিতে থাকেন এনামুল৷ ওই ছাত্রী এনামুলের কথোপকথন মুঠোফোনে ধারণ করেন।

গত ১৪ আগস্ট সংগীত বিভাগের একজন ছাত্রী বিভাগের চেয়ারম্যান দেবপ্রসাদ দাঁর কাছে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দেন৷ অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্তের জন্য ১৬ আগস্ট কমিটি করে সংগীত বিভাগ৷ একইদিন বিভাগের একাডেমিক কমিটির সভা হয়৷

সভায় তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে এনামুলকে এক বছরের জন্য শিক্ষা কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেওয়ার পক্ষে মত দেন বেশির ভাগ শিক্ষক৷ তদন্ত কমিটির কাছে এনামুল তাঁর অপরাধ স্বীকার করে ক্ষমা চান। ১৭ আগস্ট তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দিয়ে জানায় যে অভিযোগ সত্য৷ সেদিনই এনামুলকে অব্যাহতির সুপারিশ চূড়ান্ত করা হয়৷

বিভাগটির শিক্ষার্থীরা ওই শিক্ষকের স্থায়ী অব্যাহতি দাবি করেছেন৷ এই দাবির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামীকাল রোববার বিভাগের একাডেমিক কমিটির সভা হবে।

অভিযোগের বিষয়ে বক্তব্য জানতে অভিযুক্ত শিক্ষক এনামুল হকের মুঠোফোনে কয়েক দফায় ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

news24bd.tv/FA