মায়ের পরকীয়ায় বাঁধা হওয়ায় মামার পিটুনিতে ভাগ্নের মৃত্যু
মায়ের পরকীয়ায় বাঁধা হওয়ায় মামার পিটুনিতে ভাগ্নের মৃত্যু

মায়ের পরকীয়ায় বাঁধা হওয়ায় মামার পিটুনিতে ভাগ্নের মৃত্যু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :

ঝিনাইদহ শহরের ব্যাপারীপাড়ায় মামার মারপিটে ভাগ্নে সলোক হোসেনের (২৭) মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার বিকালে ঝিনাইদহ শহরের ব্যাপারীপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সলোক হরিনাকুন্ডু উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের মৃত সহিদুল ইসলামের ছেলে। মায়ের সাথে ঝিনাইদহ শহরের ব্যাপারীপাড়ায় বসবাস করতেন তিনি।

 

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র বলছে, সলোক হোসেন বেপরোয়া জীবনযাপন করতো। মাকে প্রায় মারধর করতো। অতিষ্ঠ মা তার ভাইদের খবর দিলে গত বৃহস্পতিবার দুপুরে সলোককে মারধর করে তার চাচাতো মামা খাইরুল ইসলাম ছোটন। তিনি সদর উপজেলার জাদুড়িয়াকে গ্রামের গোলাম রসুলের ছেলে।

মারধর করায় সলোক মাথায় আঘাত লেগে গুরুতর জখম হয়। তাকে আহত অবস্থায় ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে শুক্রবার বিকালে সে মারা যায়।

এদিকে অন্য একটি সূত্রে জানা যায়, মায়ের পরকীয়া সহ্য করতে পারতো না সলোক। এ নিয়ে মাকে সে প্রায় বাধা দিত। মা তার ভাইদের কাছে বিষয়টি অন্যভাবে উপস্থাপন করে ছেলে সলোককে শায়েস্তা করতে গিয়ে মারধরের ফলে সলোকের মৃত্যু হয়।  

এদিকে, এ ঘটনায় ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ার সাঈদ ও সদর থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ওসি শেখ মোহাম্মদ সোহেল বলেছেন, এখনো এ ঘটনায় মামলা হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে, শাসন করতে গিয়ে এমনটি ঘটতে পারে।

news24bd.tv/কামরুল

সম্পর্কিত খবর