তাইওয়ান ঘিরে আবার চীনের মহড়া
তাইওয়ান ঘিরে আবার চীনের মহড়া

সংগৃহীত ছবি

তাইওয়ান ঘিরে আবার চীনের মহড়া

অনলাইন ডেস্ক

চীনের সামরিক হুমকি উপেক্ষা করে সম্প্রতি তাইওয়ান সফরে করেছেন মার্কিন আইনসভা কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। এরপর থেকে চীন ও তাইওয়ানের মধ্যকার উত্তেজনা আরও বেড়েছে।

শনিবার (২০ আগস্ট) তাইওয়ান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় অভিযোগ করেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় চীনের আটটি যুদ্ধ বিমান তাইওয়ান প্রণালিতে তাইওয়ান ও চীনের অলিখিত সীমা বা মধ্যরেখা অতিক্রম করেছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে চারটি জেএইচ-৭।

বাকিগুলোর মধ্যে দুটি সুখোই-৩০ এবং দুটি জে-১১ যুদ্ধবিমানও রয়েছে। খবর তাইওয়ান নিউজ।

সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদন অনুযায়ী তাইওয়ানের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, শুক্রবার (১৯ আগস্ট) বিকাল পাঁচটা থেকে চীনের এই সামরিক কর্মকাণ্ড দেখতে পাওয়া যায়। চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) এয়ার ফোর্সের ১৭টি যুদ্ধবিমানের মধ্যে ৮টি সীমানা অতিক্রম করে।

এগুলোর মধ্যে ছিল চারটি শিআন জেএইচ–৭ ফাইটার বোম্বার, দুটি সুখোই এসইউ–৩০ ফাইটার ও দুটি সেনইয়াং জে–১১ জেট বিমান। এগুলোর মধ্যে জেএইচ–৭–এ এসইউ–৩০ যুদ্ধবিমানগুলো উত্তর প্রান্ত ও জে–১১ ফাইটার বিমানগুলো দক্ষিণ প্রান্ত দিয়ে সীমানা অতিক্রম করে।

তাইওয়ানের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, চীনের সামরিক কর্মকাণ্ডের মুখে তারা নজরদারি ও পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে কমব্যাট এয়ার প্যাট্রোলস (সিএপি), নৌবাহিনীর জাহাজ ও প্রতিরক্ষা ক্ষেপণাস্ত্রব্যবস্থা সক্রিয় করার ব্যবস্থা নেয়।

চীনা নৌ বাহিনীর পক্ষ থেকে তাইওয়ান প্রণালীতে মোতায়েন করা যুদ্ধ জাহাজগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘অ্যাম্ফিবিয়ান ল্যান্ডিং ভেহিকল’ও। যুদ্ধ পরিস্থিতিতে ‘দ্বীপরাষ্ট্র’ তাইওয়ানে দ্রুত সেনা অবতরণের উদ্দেশ্যেই এই পরিকল্পনা করা হয়েছে বলে মনে করছেন সামরিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ।

news24bd.tv/আলী