বার বার ঘুম ভাঙে? সতর্ক হোন এখনি
বার বার ঘুম ভাঙে? সতর্ক হোন এখনি

সংগৃহীত ছবি

বার বার ঘুম ভাঙে? সতর্ক হোন এখনি

অনলাইন ডেস্ক

ঘুমে অনিয়ম এখন একটা অভ্যাসে পরিণত হয়েছে অনেকের। সঠিক সময়ে বা পর্যাপ্ত না ঘুমানোর অভ্যাস শরীরের ক্ষতি করতে পারে। তবে গবেষণা বলছে, বার বার ঘুম ভাঙলেও শরীরে মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে।  

দিনে সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমের প্রয়োজন যে কোনও প্রাপ্তবয়স্কের।

কিন্তু নানা কারণে অনেকেরই তার চেয়ে কম ঘুম হয়। কারও কাজের চাপ, কারও বা অন্য চিন্তা। কেউ বিনোদনেই কাটিয়ে দেন সময়। আর কিছু দিনেই চলে যায় টানা ঘুমানোর অভ্যাস।

কম ঘুম বহু শারীরিক সমস্যা ডেকে আনতে পারে। রক্তচাপ বেড়ে যাওয়া, স্নায়ুর সমস্যা বা অবসাদের মত সমস্যাও বাড়তে পারে কম ঘুমালে। সে কারণেই অনেকে ঘুমের ঘাটতি পূরণ করার চেষ্টা করেন বার বার ঘুমিয়ে। কিন্তু আমেরিকার ‘জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়’-এর গবেষকরা পরীক্ষা করে দেখেছেন, বার বার ঘুম ভেঙে গেলে তা শরীরের মারাত্মক ক্ষতি করে। সেই ক্ষতির পরিমাণ কম ঘুমের চেয়েও বেশি।

৫০ জন স্বেচ্ছাসেবীর উপর করা এক গবেষণার ফলাফল এমনটিই বলছে। গবেষকরা স্বেচ্ছাসেবীদের দুটি দলে ভাগ করেন। প্রথম দলের সদস্যদের জোর করে দীর্ঘ সময় জাগিয়ে রাখা হয়। কিন্তু এক বার ঘুমিয়ে পড়লে, তাদের আর বিরক্ত করা হয় না। দ্বিতীয় দলের সদস্যদের তাড়াতাড়ি ঘুমোতে যেতে দেওয়া হলেও বার বার ঘুম ভাঙানো হয়।

টানা তিন রাত দুটি দলকে একই পরিস্থিতির মধ্যে রেখেছিলেন গবেষকরা। সেখান থেকে যে ফলাফল পাওয়া গিয়েছে তা প্রকাশ করা হয়েছে আন্তর্জাতিক ‘স্লিপ’ জার্নালে। গবেষণাপত্র বলছে, যাঁদের ঘুম বার বার ভেঙেছে, তাঁদের মনে কাজের ইচ্ছা কমছে। মন ভাল থাকছে না। যাঁরা প্রয়োজনের চেয়ে কম ঘুমিয়েছেন, তাঁদের ক্ষতির পরিমাণ কিন্তু এঁদের তুলনায় কম।

news24bd.tv/আজিজ