পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য একান্তই তার ব্যক্তিগত : আইনমন্ত্রী
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য একান্তই তার ব্যক্তিগত : আইনমন্ত্রী

ফাইল ছবি

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য একান্তই তার ব্যক্তিগত : আইনমন্ত্রী

শাহানাজ ইয়াসমিন

গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় থেকে অনেক সতর্কভাবে কথা বলা উচিৎ বলে মনে করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী যা বলেছেন সেটা তার নিজস্ব মতামত। তিনি এটা বলার আগে কেবিনেটের সাথে বা দলের সাথে আলোচনা করেননি। তাই তার বক্তব্য একান্তই ব্যক্তিগত।

এটা সরকার বা দলের বক্তব্য নয়।

রোববার নিবন্ধন অধিদপ্তরে ১৫ আগস্ট উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, নিজেদের অর্থায়নে মাত্র একটা পদ্মাসেতু বানানোর ফলেই এদেশের মানুষের মানসিক জোর বেড়ে গেছে। যদিও দেশ এখন একটি কঠিন সময় পার করছে, কিন্তু এদেশের মানুষের আত্মবিশ্বাসের কারণে এই কঠিন সময়ও পার করতে পারবে।

এসময় মন্ত্রী আরও বলেন, প্রত্যক্ষভাবে বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে এবং এর সাথে যারা জড়িত ছিল তাদের অনেকেই মারা গেছেন। কিন্তু হত্যার বিচার হয়েছে বলেই আজকে পরবর্তী ধাপ- কমিশন করার চেষ্টা করছি।

মন্ত্রী বলেন, কিন্তু একটা সময় ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ করে বিচার বন্ধ করে পরবর্তীতে তা আইনে পরিণত করা হয়েছিল। তাই সেসময় খুনিদের বিচার না করে তাদেরকে বিভিন্ন হাইকমিশনে চাকরি দেয়া হয়েছিল। তাই এটা খুব স্পষ্ট যে এরা যারা করেছে তারাই বঙ্গবন্ধুর হত্যার সাথে জড়িত। সেসব উৎরিয়ে ৩৪ বছর পর আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেছে। যদিও অনেক আলামত নষ্ট করে দেয়া হয়েছিল।

আনিসুল হক বলেন, আওয়ামী লীগ আগেও জনগণের শক্তি নিয়ে সরকার গঠন করেছে। তাই জনগণের শক্তি নিয়েও আবারও সরকার গঠন করবে আওয়ামী লীগ। তাতে অন্য কোনো শক্তির প্রয়োজন নেই আওয়ামী লীগের।

news24bd.tv/FA