৬ মাস পরেই বুস্টার ডোজের কার্যকারিতা কমে যায় : গবেষণা
৬ মাস পরেই বুস্টার ডোজের কার্যকারিতা কমে যায় : গবেষণা

৬ মাস পরেই বুস্টার ডোজের কার্যকারিতা কমে যায় : গবেষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুস্টার ডোজ নেয়ার ৬ মাস পরেই এর অ্যান্টিবডি কমে আসে বলে জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণা। অ্যান্টিবডি শতভাগ টিকা গ্রহীতার শরীরে পাওয়া গেলেও গড়ে কমে ১০৬৭৫.৭ এইউ/এমএল নেমে আসে।

আজ সোমবার এমন তথ্য জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ। এক সভায় তিনি জানান, গত এক মাস ১ম ও ২য় ডোজ করোনার টিকা গ্রহণকারী ২২৩ জনের ওপর পরিচালিত এক গবেষণায় ৯৮ শতাংশের শরীরে অ্যান্টিবডি পাওয়া গেছে।

তবে ৬ মাস পর অ্যান্টিবডি কমতে থাকে। তাদের মধ্যে ৭৩ শতাংশের অ্যান্টিবডির মাত্রা হ্রাস পেয়ে ৬৭৯২ এইউ/এমএল থেকে ৩৯৬৩ এইউ/এমএল পর্যন্ত নেমে এসেছে।

গবেষণায় উঠে এসেছে, গবেষণা চলাকালীন ২ জনের শরীরে কোনো অ্যান্টিবডি পাওয়া যায়নি। বুস্টার ডোজ গ্রহীতাদের শরীরে অ্যান্টিবডি আবারও বৃদ্ধি পেয়েছে।

এতে অ্যান্টিবডির মাত্রা ২০৮৭৮ এইউ/এমএল পর্যন্ত উঠে এসেছে। তবে ৬ মাস পরে তা কমে ১০৬৭৫.৭ এইউ/এমএল পর্যন্ত নেমে এসেছে।

গবেষণায় আরও বলা হয়, যাদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার ইতিহাস রয়েছে তাদের মধ্যে অ্যান্টিবডির মাত্রা বেশি। তাদের রক্তে হিমোগ্লোবিন ও প্লাটিলেটসহ অন্যান্য তে উল্লেখযোগ্য কোনো পরিবর্তন দেখা যায়নি।

এসময় গবেষণা দলের প্রধান ও হেমাটোলজি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক সালাহউদ্দিন শাহ বলেন, বুস্টার ডোজের পরও চতুর্থ ডোজ বা দ্বিতীয় বুস্টার ডোজ প্রয়োজন কি না তা নিরূপণে এ গবেষণা করা হয়েছে।

news24bd.tv/FA