অবশেষে শ্রীলঙ্কার বন্দর ছাড়ল চীনের যুদ্ধজাহাজ
অবশেষে শ্রীলঙ্কার বন্দর ছাড়ল চীনের যুদ্ধজাহাজ

সংগৃহীত ছবি

অবশেষে শ্রীলঙ্কার বন্দর ছাড়ল চীনের যুদ্ধজাহাজ

অনলাইন ডেস্ক

প্রায় এক সপ্তাহ অবস্থানের পর শ্রীলঙ্কার হাম্বানটোটা বন্দরে নোঙ্গর করা চীনা সামরিক সমীক্ষা জাহাজটি ছেড়ে গেছে। বন্দর কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স। সোমবার বিকেল ৪ টায় চীনের জিয়াং ইন বন্দরের উদ্দেশে শ্রীলঙ্কার বন্দর ত্যাগ করে জাহাজটি।

স্যাটেলাইট ট্র্যাকিং সিস্টেম ও ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রসহ বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক ও সামরিক সরঞ্জাম সমৃদ্ধ জাহাজ ইউয়ান ওয়াং ৫ হাম্বানটোটা শ্রীলঙ্কার হাম্বানটোটা বন্দরে নোঙ্গর করে ১৬ আগস্ট।

বিশ্লেষকরা বলছেন, চীনা এই জাহাজ স্যাটেলাইট, রকেট এবং আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ পর্যবেক্ষণ করতে পারে। ভারতের আশঙ্কা, চীন বন্দরটিকে সামরিক ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করতে পারে।

চীনের সরকারের পক্ষ এ সম্পর্কে বলা হয়েছিল বৈজ্ঞানিক গবেষণার জন্য জাহাজটিকে সমুদ্রে পাঠানো হয়েছে। যাত্রাপথে রসদ শেষ হয়ে যাওয়ায় হাম্বানটোটা বন্দরে যাত্রাবিরতি করা প্রয়োজন।

কিন্তু তারপরই যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ইউয়ান ওয়াং ৫ চীনের সামরিক বাহিনী পিপলস লিবারেশন আর্মির (পিএলএ) যুদ্ধজাহাজ এবং এটি ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও সর্বাধুনিক স্যাটেলাইট ট্র্যাকিং সিস্টেম সমৃদ্ধ।

মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এই বিৃবতিতে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠে ভারত। হাম্বানটোটা বন্দরে চীনা জাহাজকে নোঙ্গর করতে দেওয়ার অনুমতি না দিতে শ্রীলঙ্কার সরকারকে চাপ দেয় ভারতের সরকার। প্রতিবেশী দেশের এ চাপের মুখে জাহাজটিকে নিজেদের বন্দরে ভিড়তে আপত্তি জানালেও পরে ১৫ আগস্ট সেই আপত্তি প্রত্যাহার করে নেয় কলম্বো। তারপর ১৬ আগস্ট হাম্বানটোটা বন্দরে ভেড়ে ইউয়ান ওয়াং ৫।

হাম্বানটোটা বন্দরের পোর্টমাস্টার নির্মল সিলভা পিটিআইকে বলেন, বন্দরে যাত্রাবিরতি দেওয়ার সময় জাহাজের নাবিকদের জাহাজ থেকে না নামার অনুরোধ জানানো হয়েছিল এবং নাবিকরা তা মেনে চলেছেন। শ্রীলঙ্কায় চীনা দূতাবাসের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে জাহাজটিকে প্রয়োজনীয় রসদ সরবরাহ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

news24bd.tv/আজিজ