তল্লাশি অভিযানকে নির্বাচনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করবে ট্রাম্প
তল্লাশি অভিযানকে নির্বাচনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করবে ট্রাম্প

সংগৃহীত ছবি

তল্লাশি অভিযানকে নির্বাচনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করবে ট্রাম্প

অনলাইন ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফ্লোরিডার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছিল দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআই। এ অভিযান নিয়ে আইনি পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ট্রাম্প। এমনকি তল্লাশি অভিযানকে আগামী নির্বাচনের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করতে চান সাবেক এই প্রেসিডেন্ট। খবর সিএনএনের।

প্রতিবেদনে সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, এফবিআইয়ের অভিযান নিয়ে মামলা করেছেন ট্রাম্প। এমনকি এ অভিযানকে ২০২৪ সালের নির্বাচনের জন্য কাজে লাগাতে চান তিনি।

তল্লাশি অভিযানে ট্রাম্পের সাংবিধানিক অধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে দাবী করে সোমবার (২২ আগস্ট) এক ফেডারেল বিচারককে জানিয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের আইনি দল। জব্দকৃত নথিগুলো নিয়ে বিচার বিভাগের তদন্ত বন্ধের আদেশ দিতে আদালতে আবেদন করেছেন তারা।

আবেদনে তারা বলেছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তার দাপ্তরিক দায়িত্ব পালনের সময় যেসব আলোচনা করেছেন, সেগুলো নিরপেক্ষভাবে পর্যালোচনা করে যাচাই–বাছাইয়ের মাধ্যমে শুধু একজন স্বতন্ত্র কৌঁসুলি জনস্বার্থ রক্ষা করতে পারেন।

ফ্লোরিডার আদালতে জমা দেওয়া ২৭ পৃষ্ঠার নথিতে ট্রাম্পের আইনি দল অভিযোগ করেছে, ২০২৪ সালের নির্বাচনে ট্রাম্প যেন  প্রেসিডেন্ট প্রার্থী না হতে পারেন সে চেষ্টায় তার ফ্লোরিডার বাড়িতে এ তল্লাশি চালানো হয়েছে।

নথি নিয়ে বিচার বিভাগের তদন্ত বন্ধের আবেদন যুক্তরাষ্ট্রে নতুন নয় বলে দাবি সিএনএনের। ট্রাম্পের মতো উচ্চপদস্থদের বাড়িতে অভিযানগুলোতে আদালতের দ্বারস্থ হলে বিচারক সায় দেয় বলে প্রতিবেদনে সংবাদ মাধ্যমটি জানায়।

২০২৪ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো লড়ার কথা আগে থেকেই জানিয়ে আসছেন ট্রাম্প। আর তল্লাশি অভিযানকে বাইডেন প্রশাসনের দ্বারা নির্যাতিত একজন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে দেখাতে চান রিপাবলিকান এ নেতা। আর এটিকে নির্বাচনের রোডম্যাপ হিসেবে ব্যবহার করতে চান ট্রাম্প।

ট্রাম্পের আইনি পদক্ষেপকে নিয়ে সিএনএন জানায়, সাবেক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো বিলম্বিত, বিভ্রান্ত, বিকৃত এবং রাজনৈতিককরণের জন্য মামলা  করা হয়েছে, ইতিহাসে এমনটি বার বার দেখা গেছে। এটি এমন একটি কৌশল যা প্রায়শই গুরুতর জবাবদিহিতা থেকে উচ্চপদস্থদের রক্ষা করতে কাজ করেছে। সাবেকরা প্রায়শ রাজনৈতিক ও আইনি কৌশলগুলোকে মিশ্রিত করে, ট্রাম্পের পদক্ষেপ এর একটি বড় উদাহরণ।

এ দিকে ট্রাম্পের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে তিন শতাধিক গুরুত্বপূর্ণ ও গোপন রাষ্ট্রীয় নথি জব্দ করা হয়েছে বলে দাবি এফবিআইয়ের। জব্দ করা এসব নথির মধ্যে সিআইএ এবং এফবিআইয়ের জাতীয় নিরাপত্তা–সংক্রান্ত নথিও রয়েছে।

news24bd.tv/মামুন