আমরা কি তাহলে চলচ্চিত্র নির্মাণ করব না? প্রশ্ন জয়ার
আমরা কি তাহলে চলচ্চিত্র নির্মাণ করব না? প্রশ্ন জয়ার

আমরা কি তাহলে চলচ্চিত্র নির্মাণ করব না? প্রশ্ন জয়ার

অনলাইন ডেস্ক

 জয়া আহসান বলেন, ‘কোনো শিল্পকলা আসলেই কি কোনো শর্ত মেনে চলতে পারে? কোনো চলচ্চিত্র কি শর্তসাপেক্ষে তৈরি হতে পারে? তাহলে চলচ্চিত্র কেনো? প্রাণ-প্রকৃতি নিয়ে আমার নিজের একটা খাঁটি আবেগ আছে। সেই জায়গা থেকে প্রাণ-প্রকৃতি নিয়ে আমি আরও বেশি কথা বলি। তাই বলে কি চলচ্চিত্র বন্ধ করতে হবে?

‘হাওয়া’ সিনেমার পরিচালকের বিরুদ্ধে বন বিভাগের বন্যপ্রাণী অপরাধ দমন ইউনিটের মামলা এবং নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নতুন সিনেমা ‘শনিবার বিকেল’ মুক্তির অনুমতি না দেওয়া নিয়ে প্রতিবাদ মুখর চলচ্চিত্র অঙ্গন।  

এসব বিষয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার দিকে ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটিতে ‘বাংলা চলচ্চিত্র বা কনটেন্টে সেন্সরশিপের খড়গ-গল্প বলার স্বাধীনতা চাই’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

অভিনেত্রী জয়া বলেন, বন উজাড় হচ্ছে, দিনের পর দিন পশুপাখির সঙ্গে অমানবিক আচরণ করছে এগুলোর বেলায় বনবিভাগ বা প্রশাসন কোথায়? চলচ্চিত্রের বেলায় প্রশাসনের একটা চাপ কেন? সব চরিত্র যদি নিয়ম মেপে চলতে থাকে তাহলে তো কোনো ফিকশনই তৈরি হবে না। আমরা কি তাহলে চলচ্চিত্র নির্মাণ করবো না? আমরা কি তাহলে গল্প বলবো না?

তিনি বলেন, ‘শনিবার বিকেল’ সিনেমাটি নিয়ে এখন কথা হচ্ছে। এটা নিয়ে আমরা অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছি। হলি আর্টিজেনের ঘটনা কি আসলে ঘটেনি?  সেগুলো নিয়ে লেখালেখি হয়েছে।

কিছুদিন আগে শাহিন আক্তার একটি উপন্যাস রচনা করলেন। সেগুলো কি আমরা আটকাতে পেরেছি? চলচ্চিত্রের বেলা কি অসুবিধা? আমার জন্মদিন ১লা জুলাই। হলি আর্টিজেনের ঘটনা নিয়ে আমি এতোটা ট্রমাটাইজ হয়ে আছি যে আমার জন্মদিনটা আমি পালন করতে পারি না। আমার মনে হয় ওই দিনটিতে একটা কাল দাগ লেগে গেছে।

news24bd.tv/কামরুল