কে হচ্ছেন ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী
কে হচ্ছেন ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী

সংগৃহীত ছবি

কে হচ্ছেন ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

তীব্র সমালোচনা ও বিতর্ক জন্ম দিয়ে অবশেষে গত ৭ জুলাই পদত্যাগ করেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। নতুন করে এগিয়ে আসছে আরও একটি নির্বাচন। যেখানে প্রধানমন্ত্রী পদ প্রার্থিতায় শেষ পর্যন্ত টিকে রয়েছেন সরকারী দলের দুই সদস্য রিশি সুনাক ও লিজ ট্রাস। আগামী সোমবার দু’জনের একজন যুক্তরাজ্যের নতুন প্রধানমন্ত্রী হবেন।

যুক্তরাজ্যের সংবিধান অনুযায়ী, দেশটির প্রধানমন্ত্রী তার মেয়াদ পূর্ণ করার আগেই ক্ষমতাচ্যুত হলে সরকারি দলের আগ্রহী প্রার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সুযোগ পান। সেক্ষেত্রে ক্ষমতাসীন দলের অন্তত দুই জন আইন প্রণেতার সমর্থন রয়েছে— এমন যে কোনো পার্লামেন্ট সদস্য বর্তমান পরিস্থিতিতে নিজেকে প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করতে পারেন। সেখান থেকে কয়েক দফা ভোটের মাধ্যমে প্রার্থী সংখ্যা কমে দুই জনে দাঁড়ালে চূড়ান্ত ভোট অনুষ্ঠিত হয়। একই নিয়মে ২০১৯ সালে সাবেক প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে’র পদত্যাগের পর দেশটির প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন জনসন।

তবে লকডাউনের বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে মদের পার্টিতে অংশ নেওয়াসহ উচ্চ মূল্যস্ফীতি ও বিভিন্ন ইস্যুতে প্রচণ্ড চাপের মুখে গত ৭ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে অব্যাহতি নিতে বাধ্য হন জনসন। তার পদত্যাগের পর শুরু হয় দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী বাছাইয়ের প্রক্রিয়া। যেখানে সরকার দলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস ও একই দলের সাবেক চ্যান্সেলর রিশি সুনাক যুক্তরাজ্যের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে টিকে আছেন। সোমবার জানা যাবে কে হচ্ছেন দেশটির পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী হতে নিজেদের পক্ষে ভোট চেয়ে শেষ সময়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন দুই প্রার্থী। দিচ্ছেন নান প্রতিশ্রুতি। যেখানে ট্রাসের নির্বাচন ক্যাম্পেইনে অগ্রাধিকার পাচ্ছে লিঙ্গ বৈষম্য নির্মূল, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ, কর ব্যবস্থার সংস্কারসহ জনগণের জীবনমান বৃদ্ধির করা।

বিপরীতে রিশি সুনাক প্রাধান্য দিয়েছেন অর্থনৈতিক সংস্কার, মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, বেকারত্ব দূর করা সহ জীবনমানের উন্নয়নে। এরআগে পার্লামেন্ট ভোট পর্ব শেষে দেখা গেছে ট্রাসের থেকে এগিয়ে ছিলেন সুনাক। সুনাকের ১৩৭ ভোটের বিপরীতে ট্রাসের ভোট ১১৩। এখন পার্লামেন্টের বাইরে সরকারি দলের ভোট গণনা করা হবে। এই ভোটারের সংখ্যা ১৬ লাখ।

news24bd.tv/আমিরুল